1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জেনেভায় চলছে সিরিয়া শান্তি আলোচনা শুরুর প্রস্তুতি

সিরিয়া শান্তি সম্মেলনের ইস্যু নিয়ে সিরিয়া বিষয়ক জাতিসংঘ-আরব লিগের বিশেষ দূত লাখদার ব্রাহিমি মঙ্গলবার জেনেভায় বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করবেন৷

গত বছর থেকেই আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় চেষ্টা করে যাচ্ছে সিরিয়া যুদ্ধ বন্ধে সরকার ও বিরোধী দলকে এক টেবিলে বসিয়ে আলোচনার ক্ষেত্র প্রস্তুত করার জন্য৷ কিন্তু বরাবরই বিফল হয়েছে তারা৷ তাই আবারো জেনেভায় শীর্ষ কূটনীতিকদের নিয়ে আলোচনায় বসছেন সিরিয়া বিষয়ক জাতিসংঘ ও আরব লিগের বিশেষ দূত লাখদার ব্রাহিমি৷ প্রথমে তিনি দেখা করবেন রুশ উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী গেনাদি গাতিলভ ও মিখাইল বোগদানোভ এবং যুক্তরাষ্ট্রের আন্ডার সেক্রেটারি অফ স্টেট ফর পলিটিকাল অ্যাফেয়ার্স ওয়েনডি শেরম্যানের সঙ্গে৷

রাতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য চীন, ফ্রান্স ও ব্রিটেনের কূটনীতিকদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন তিনি৷ আলোচনার প্রধান বিষয় হলো সিরিয়া যুদ্ধ বন্ধে উদ্যোগ হিসেবে শান্তি সম্মেলনে কারা অংশ নিবে৷

সোমবার রাতে সিরিয়ার তথ্যমন্ত্রী ওমরান আল-জোবি ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের পদত্যাগের শর্তে তারা শান্তি সম্মেলনে অংশ নেবেন না৷ রিয়াদে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি সেখানকার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সিরিয়া বিষয়ে আলোচনা করার পরই এ ঘোষণা আসে৷

এদিকে রোববার আরব লিগের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা কায়রোতে সমবেত হয়ে সিরিয়ার বিরোধী দলকে সম্মেলনে অংশ নেয়ার ব্যাপারে চাপ দেন৷ বিরোধী দল ন্যাশনাল কোয়ালিশনের প্রধান আহমেদ জাবরা জানান, আগামী শনিবার ইস্তানবুলে বৈঠক করে তাঁরা ঠিক করবেন জেনেভা সম্মেলনে অংশ নেবেন কিনা৷

দীর্ঘ আড়াই বছরের যুদ্ধ ও সংঘর্ষের ফলে সিরিয়ায় অন্তত এক কোটি মানুষের জরুরি সাহায্যের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে৷ সোমবার জাতিসংঘ মানবিক অফিস জানিয়েছে, আড়াই বছরের এই গৃহযুদ্ধে ৯৩ লাখ, অর্থাৎ মোট জনসংখ্যার ৪০ ভাগ মানুষের জরুরিভিত্তিতে ত্রাণ প্রয়োজন৷

এ বিভাগের প্রধান ভ্যালেরি আমোস জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে জানিয়েছেন, সিরিয়ার মানবিক পরিস্থিতি দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে৷ ৯৩ লাখ মানুষের মধ্যে ৬৫ লাখই গৃহহীন৷ সিরিয়ার এসব মানুষদের খাদ্য, চিকিৎসা ও নিরাপত্তা সহয়তা চেয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আবেদন জানিয়েছেন তিনি৷ গত মাসে ইরাক সীমান্তের কাছে দেইর আল-জোর প্রদেশে ২২ শিশু অচল হয়ে যায়, যাদের মধ্যে ১০ জনের দেহে পোলিও ভাইরাস পাওয়া গেছে৷ তাই শিশুদের ভ্যাক্সিনেশনের আবেদন জানিয়েছেন তিনি৷

অন্যদিকে জাতিসংঘ জানিয়েছে, সিরিয়া থেকে অন্তত ২২ লাখ মানুষ প্রতিবেশী দেশগুলোতে আশ্রয় নিয়েছে৷ এবং এ বছরের শেষ নাগাদ তা ৩০ লাখে দাঁড়াবে৷

৩১ মাসের এই যুদ্ধে অন্তত এক লাখ মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ৷ জাতিসংঘ বলছে, জর্ডানের বর্তমানে ৬ লাখ সিরীয় শরণার্থী রয়েছে আর লেবাননে আছে ৮ লাখ শরণার্থী৷ তবে এই দুই দেশের সরকারের দাবি সংখ্যাটা আরো বেশি৷

এপিবি/ডিজি (এএফপি/রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়