1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জাহিদ হাসান-মেহজাবিনের ছবি নিয়ে তুলকালাম

মডেল মেহজাবিন আর অভিনেতা জাহিদ হাসানের ছবির আপত্তিকর ব্যবহার নিয়ে শুরু হয় তোলপাড়৷ ছবিতে আপত্তিকর মন্তব্যও করেন উঠতি মডেল শবনম ফারিয়া৷ অশ্লীল মন্তব্য বিনিময়ের পর অবশ্য ঘটনার অবসান হয়েছে৷

লাক্স-চ্যানেল আই তারকা মেহজাবিন আর অভিনেতা জাহিদ হাসানকে নিয়ে ‘মুড়ি খা' নামের ফেসবুক ট্রল পেজের একটি ছবি আপত্তিকরভাবে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে গত ১৭ নভেম্বর শেয়ার করেছিলেন শবনম ফারিয়া৷ মেহজাবিন কী ভীষণভাবে তার জবাব দিয়েছিলেন, তারপর ফারিয়া তার তুলনায় সিনিয়র একজন মডেলের প্রতি সামান্য সম্মান না দেখিয়ে কীভাবে অসংখ্য পুরুষের সঙ্গে প্রেম করা এবং অন্যান্য ব্যক্তিগত বিষয়ে প্রমাণহীন বক্তব্য দিয়েছিলেন, তার একটা বিবরণ সামহয়্যার ইন ব্লগে তুলে ধরেছেন জামিল আশরাফ খান৷ তবে ঘটনা সেখানেই থামেনি৷ তারকাদের কাছ থেকে কথাবার্তা প্রত্যাশিত নয় তেমন প্রায় সব কথাই লিখেছেন দুজন৷ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাদের এই কুৎসিত কথার লড়াই নিয়ে শুরু হয়েছিল তোলপাড়৷

Mehazabien Chowdhury

লাক্স-চ্যানেল আই তারকা মেহজাবিন

দুজনের ফেসবুক অ্যাকাউন্টেই মন্তব্য পড়েছে অনেক৷ সেখানে বিদ্রুপাত্মক মন্তব্যও ছিল অনেক৷ এক পর্যায়ে নিজের ভুল স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেন মডেল শবনম ফারিয়া৷ নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে তিনি লিখেছেন,‘‘আমি লজ্জিত, আমি ক্ষুব্ধ, আমি বিস্মিত! আর ২৪ ঘণ্টা গেলে আমাকে মানসিক ডাক্তার এর কাছে নিয়ে যাওয়া ছাড়া আর উপায় থাকবে না! আমি মেহজাবিন চৌধুরীর কাছে ক্ষমা প্রার্থী! ভুল আমাদের দুজনেরই ছিল, কিন্তু শুরুটা যেহেতু আমাকে দিয়েই তাই আমিই বলছি, আমি দুঃখিত, আমি সত্যিই আপনাকে হার্ট করতে চাইনি, নিতান্তই দুষ্টামি করে পোস্ট করেছিলাম৷ আর দ্বিতীয় পোস্ট টা দেয়া আমার উচিত হয়নি৷ আমি দেয়ার ৩০ মিনিট পরেই ভুলটা বুঝে মুছে দিয়েছিলাম৷ আপনার দেয়া পোস্ট এ যেসব কমেন্ট ছিল, (তা দেখে) আমি নিজেকে সামলাতে পারিনি৷ যেহেতু আমরা এক জায়গায়ই কাজ করি সেক্ষেত্রে নিজেদের মধ্যকার ছোটখাটো মনোমালিন্য আমরা সবাইকে জানিয়ে নিজেরাই ছোট হয়েছি৷''

ফারিয়ার ভুল স্বীকারের পর মেহজাবিনও উত্তেজনা প্রশমনের উদ্যোগে সাড়া দিয়ে বলেছেন, ‘‘২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ফারিয়া নিজের ভুল বুঝতে পেরেছে - এটাই অনেক বড় ব্যাপার৷ আমি শুধু তাকে বলতে চাই, কারও সম্পর্কে কোনো কিছু বলার আগে ভাবা উচিত বিষয়টা নিজের সঙ্গে ঘটলে কেমন লাগে৷ আসলে কাউকে শ্রদ্ধা করলে শ্রদ্ধা পাওয়া যায়৷ আশা করব, ভবিষ্যতে ফারিয়া আর এ ধরনের কোনো ভুল কাজ করবে না৷ ফারিয়া ভালো থাকুক৷ আরও ভালো ভালো কাজ করুক৷''

সংকলন : আশীষ চক্রবর্ত্তী

সম্পাদনা : জাহিদুল হক

নির্বাচিত প্রতিবেদন