1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

জাল পাসপোর্ট ধরতে রয়েছে ইন্টারপোল তথ্যভাণ্ডার

মালয়েশিয়ার সাম্প্রতিক বিমান দুর্ঘটনাকে ঘিরে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ সংক্রান্ত বেশ কিছু বিষয় নিয়ে নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে৷ যেমন চোরাই বা জাল পাসপোর্ট নিয়ে যাত্রা৷ অথচ ইন্টারপোলের এক তথ্যভাণ্ডার তার মোকাবিলা করতে পারে৷

মালয়েশিয়ার বিমানের দুই যাত্রী ইটালি ও অস্ট্রিয়ার চোরাই পাসপোর্ট নিয়ে দিব্যি যাত্রা শুরু করতে পেরেছিলেন৷ বিমান সংস্থা, সরকারি কর্তৃপক্ষ সহ কেউই সেটা টের পায়নি৷ অথচ এই দুটি পাসপোর্ট চোরাই পাসপোর্টের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত ছিল৷ তবে এমন ঘটনা বিরল নয়৷ বহু দশক ধরেই বে-আইনি অনুপ্রবেশ, মাদক চোরাচালান সহ অনেক অপরাধের কাজে চোরাই বা জাল পাসপোর্ট, ভিসা কাজে লাগানো হচ্ছে৷

এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে চোরাই ও জাল নথিপত্র হাতবদল করে থাকে কিছু অপরাধ চক্র৷ থাইল্যান্ড ও স্পেনের নাম এ ক্ষেত্রে বার বার উঠে আসে৷ দুই দেশই প্রতি বছর বিশাল সংখ্যক পর্যটক আকর্ষণ করে৷ তাদের উৎসাহ দিতে সেখানে ভিসা সংক্রান্ত কড়াকড়িও তেমন নেই৷ তাদের মধ্যে অনেকেরই পাসপোর্ট হারিয়ে যায় বা চুরি হয়৷ অনেক সময় এক দেশে চুরি যাওয়া পাসপোর্ট অন্য দেশে পাঠিয়ে তাতে প্রয়োজনীয় পরিবর্তন করে আবার আগের দেশে নিয়ে আসে অপরাধ চক্রগুলি৷ যেমন ২০০৪ সালে মাদ্রিদে হামলার সঙ্গে জড়িত কয়েকজন সন্ত্রাসবাদীকে পাসপোর্ট সরবরাহ করেছিল একটি দল, যার শীর্ষে ছিল এক পাকিস্তানি৷ ২০০৯ সালে থাইল্যান্ডের এক নারীকে আটক করে এ বিষয়ে অনেক তথ্য জানা যায়৷

এখন প্রশ্ন হলো, এত বড় আকারে পাসপোর্ট নিয়ে অবৈধ কার্যকলাপ সত্ত্বেও বিভিন্ন দেশের সরকার, প্রশাসন ও কর্তৃপক্ষ এই অপরাধ বন্ধ করতে কেন যথেষ্ট তৎপরতা দেখাচ্ছে না৷ নাইন ইলেভেনের পর আন্তর্জাতিক পুলিশ কর্তৃপক্ষ ইন্টারপোল একটি তথ্যভাণ্ডার তৈরি করেছে, যাতে চোরাই, জাল বা অবৈধ পাসপোর্ট সংক্রান্ত তথ্য জমা পড়ে৷ কিন্তু এখনো খুব বেশি দেশ এই তথ্যভাণ্ডার কাজে লাগাচ্ছে না৷ গত বছর প্রায় ৮০ কোটি বার এই ডেটাবেস ঘাঁটা হয়েছে৷ প্রায় অর্ধেকের বেশি প্রশ্ন এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন থেকে৷ তবে যে কোনো বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন কাউন্টারগুলিকে এই তথ্যভাণ্ডারের সঙ্গে যুক্ত করা মোটেই সহজ কাজ নয়৷ বিশেষ করে তথ্য ভরার কাজের জন্য বাড়তি কর্মীর প্রয়োজন পড়ে৷ ফলে অনেক দেশই এখনো এই ব্যবস্থা কার্যকর করেনি৷

এসবি/ডিজি (ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন