1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জার্মান সামরিক বাহিনী সংক্রান্ত মধ্যস্থের রিপোর্ট পেশ

জার্মান সামরিক বাহিনী সংক্রান্ত একাধিক কেলেঙ্কারিতে সম্প্রতি প্রতিরক্ষামন্ত্রী কার্ল-থেওডোর সু গুটেনব্যার্গ বিপাকে৷ এবার এলো সামরিক বাহিনীর ব্যাপারে জার্মান সরকারের নিযুক্ত মধ্যস্থ হেলমুট কোয়েনিগসহাউসের বাৎসরিক বিবরণ৷

Guttenberg

এবার বিপাকে জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী গুটেনব্যার্গ

কিন্তু এই বিবরণে যে ধরণের গরম গরম তথ্য থাকার কথা, বিবরণটি তার চেয়ে অনেক নরমই হয়েছে, দেখা গেল৷ অথচ এই কোয়েনিগসহাউস'ই অন্তত দু'টি সাম্প্রতিক কোলেঙ্কারি ফাঁস করেছেন৷ তিনিই গুটেনব্যার্গকে একটি চিঠির মাধ্যমে ‘গর্শ ফক' জাহাজের ঘটনাবলী সম্পর্কে অবহিত করেন৷ জাহাজটি হল জার্মান সেনাবাহিনীর বৃহত্তম পালতোলা জাহাজ, যা প্রশিক্ষণের কারণে ব্যবহার করা হয়৷ গত নভেম্বরে এক ২৫ বছর বয়সি এক মহিলা ক্যাডেট অফিসার তার মাস্তুল থেকে ২৭ মিটার নীচের পাটাতনে পড়ে প্রাণ হারান৷ পরে শোনা যায় যে তাঁর উপর অত্যন্ত মানসিক চাপ সৃষ্টি করা হয়েছিল৷

অবশ্য গর্শ ফক'এ অন্যান্য ঘটনাও ঘটেছে, যদিও তার সত্যি-মিথ্যে এখনও যাচাই করা হয়নি৷ সব মিলিয়ে সামরিক বাহিনীতে আফগানিস্তানে নিযুক্ত সৈন্যদের চিঠিপত্র খুলে দেখা থেকে শুরু করে সৈনিকদের গালিগালাজ, তাদের উপর যৌন হস্তক্ষেপ ইত্যাদি অনেক কিছুই শোনা যাচ্ছে৷

কোয়েনিগসহাউসের রিপোর্টের উপজীব্য কিন্তু ছিল জার্মান সামরিক বাহিনীকে কর্মরত'রা যা'তে তাদের পারিবারিক জীবনের সঙ্গে এই সেবা খাপ খাইয়ে নিতে পারে, সে ব্যাপারে৷

Karl Theodor zu Guttenberg Flugzeugträger Besuch Nuklear Sizilien Flash-Galerie

গুটেনব্যার্গ যে তদন্তের আগেই গর্শ ফক'এর ক্যাপ্টেনকে বরখাস্ত করেছেন, তাও তাঁকে অন্যায় অভিযোগ থেকে রক্ষার জন্য

যেমন সৈন্যদের যতোদূর সম্ভব তাদের বাড়ির কাছের ছাউনিতে পোস্টিং করা উচিৎ, ইত্যাদি৷

রিপোর্টে প্রতিরক্ষামন্ত্রী গুটেনব্যার্গ বেকসুর খালাস পেলেন, এক হিসেবে তা'ই বলা যায়৷ এমনকি গুটেনব্যার্গ যে তদন্তের আগেই গর্শ ফক'এর ক্যাপ্টেনকে বরখাস্ত করেছেন, সেটাও ঐ ক্যাপ্টেনকে অন্যায় অভিযোগ থেকে রক্ষা করার জন্যই, বলেছেন কোয়েনিগসহাউস৷

তবে উনি যে সামরিক বাহিনীতে কোনো খুঁতই খুঁজে পাননি, এমন নয়৷ বিশেষ করে অনভিজ্ঞ অফিসাররা যেভাবে ক্যাডেট এবং সৈনিকদের সাথে ব্যবহার করে থাকেন, তার সমালোচনা করেছেন৷ এবং গর্শ ফক সম্পর্কেও তাঁর মন্তব্য : ক্যাডেটদের ঐ জাহাজে কাজ করার জন্য ঠিক ভাবে প্রস্তুত করা হয়নি৷ মিডিয়ার খবর, গর্শ ফক'এ যে অফিসাররা মাত্রাধিক মদ্যপান করতেন, এমনকি মদ খেয়ে ক্যাডেট অফিসারদের অপমানও করেছেন, এ'খবরও কোয়েনিগসহাউসের কাছে ছিল৷

অর্থাৎ এখনও অনেক কিছু ক্রমশ প্রকাশ্য থেকে যাচ্ছে৷

প্রতিবেদন: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম