1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

‘জার্মান-যুগ’ শুরু তত্ত্বের বিরোধী মিশেল প্লাতিনি

যে যাই বলুক, উয়েফা প্রেসিডেন্ট মিশেল প্লাতিনি মনে করেন না যে, ইউরোপীয় ফুটবলে জার্মানির প্রভাবের যুগ শুরু হয়েছে৷ তাঁর মতে, চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে ওঠাটাই সবকিছু প্রমাণ করে না৷

প্লাতিনি বলেন, প্রত্যেক বছরই একই ছবি দেখা যায়, যে দল ফাইনালে ওঠে তারই জয়গান গায় সবাই৷ ‘‘পাঁচ বছর আগে যখন চেলসি আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফাইনালে উঠেছিল, বা তারও আগে ২০০৩ সালে যখন মিলান আর ইয়ুভেন্টুস ফাইনালে খেলেছিল তখনও একই কথা বলা হয়েছে,'' মন্তব্য উয়েফা প্রেসিডেন্টের৷

২০১৬ সালের ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশীপ নিয়ে কথা বলতে ডাকা সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন প্লাতিনি৷ ফ্রান্সে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে৷

তবে একটা ব্যাপারে জার্মান ক্লাবগুলোর প্রশংসা করতে পিছপা হননি উয়েফা প্রধান৷ আর সেটা হলো, আর্থিক ব্যবস্থাপনা৷ তিনি বলেন, জার্মান ক্লাবগুলো এমনভাবে চলে যে, তাদের কখনো এক ইউরো'ও ঘাটতি হয় না৷ অন্যান্য ক্লাবের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম চালু করার চেষ্টা হবে বলেও জানান প্লাতিনি৷

ঐ সংবাদ সম্মেলনে আবারও গোললাইন প্রযুক্তির বিরুদ্ধে নিজের কড়া অবস্থান তুলে ধরেন উয়েফা প্রধান৷ তিনি বলেন, এই প্রযুক্তি বাস্তবায়ন করতে আগামী পাঁচ বছরে ৫০ মিলিয়ন ইউরো খরচ হবে৷ ‘‘এরপর হয়ত বলা হবে ‘অফসাইড প্রযুক্তি'-র কথা৷ যার জন্য আবার ৫০ মিলিয়ন ইউরো ব্যয়ের কথা উঠবে,'' মন্তব্য প্লাতিনির৷

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে গোললাইন প্রযুক্তি চালুর কথা জানিয়েছে ফিফা৷ আর ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এই প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু হবে আগামী মরশুম থেকে৷

জেডএইচ/ডিজি (এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন