1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জার্মান নৌবাহিনীর কমান্ডারকে বরখাস্ত

জার্মান নৌবাহিনীর জাহাজ গর্শ ফোকে বিদ্রোহের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে জাহাজটির কমান্ডারকে বরখাস্ত করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী কার্ল থিওডর স্যু গুটেনব্যার্গ৷ একই সঙ্গে জাহাজটিকে অবিলম্বে দেশে ফেরত আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷

default

গর্শ ফোক প্রশিক্ষণ জাহাজ

ঘটনার সূত্রপাত হয় গত নভেম্বর মাসে৷ গর্শ ফোক জাহাজটিতে ছিলেন ৭০ জন ক্যাডেট৷ গত নভেম্বর মাসে জাহাজটি অবস্থান করছিল ব্রাজিলের আশেপাশের সমুদ্র এলাকাতে৷ সেসময় ২৫ বছর বয়সী এক নারী প্রশিক্ষণার্থী জাহাজটির মাস্তুল থেকে পড়ে গিয়ে প্রাণ হারান৷ এই ঘটনার পর তীব্র অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে জাহাজটি ক্যাডেটদের মধ্যে৷ জাহাজের কমান্ডারের নির্দেশ মানতে অস্বীকৃতি জানান অনেক ক্যাডেট৷ খবর ছড়িয়ে পড়ে গর্শ ফোক জাহাজে বিদ্রোহের৷ তবে ঘটনার পরপরই পরিস্থিতি সামাল দিতে জাহাজে থাকা ৭০ জন ক্যাডেটকে সঙ্গে সঙ্গেই দেশে ফেরত পাঠানো হয়৷ এর পর অনেক ক্যাডেট জার্মান কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করেন, দীর্ঘদিন ধরে অফিসাররা তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে আসছে৷ এমনকি তারা সুযোগ পেয়ে যৌন হয়রানি করে থাকে তরুণী প্রশিক্ষণার্থীদের এমন অভিযোগও এসেছে জার্মানির প্রতিরক্ষা দপ্তরে৷

Kommandant Gorch Fock Michael Brühn ARCHIV

ক্যাডেটদের সঙ্গে কথা বলছেন নতুন কমান্ডার মিশায়েল ব্রুয়েন

এসব নিয়ে বেশ চাপের মধ্যে পড়ে যান জার্মান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী কার্ল থিওডর স্যু গুটেনব্যার্গ৷ ক্রমেই এই ঘটনা নিয়ে অভিযোগের পাহাড় জমতে থাকে৷ এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার রাতে গর্শ ফোক জাহাজের কমান্ডার নর্বার্ট শাট্জকে বরখাস্ত করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী৷ একই সঙ্গে জাহাজটিকে ডিকমিশন্ড করা হয়েছে এবং নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দেশে ফেরত আসার জন্য৷

জানা গেছে, গর্শ ফোক জাহাজটি এই মুহুর্তে অবস্থান করছে আর্জেন্টিনার উপকূলে৷ বৃহস্পতিবার জাহাজটিকে আর্জেন্টিনার উশুয়াইয়া বন্দরে নোঙ্গর করতে নির্দেশ দেওয়া হয়৷ এরপর সেখান থেকে জার্মান নৌ বাহিনীর তদন্ত দল জাহাজটিতে ওঠে৷ তার একদিন পরই জাহাজের কমান্ডারকে বরখাস্ত করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী৷ জাহাজটির কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে নর্বার্ট শাট্জ এর আগে যিনি কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন সেই মিশায়েল ব্রুয়েনকে৷

উল্লেখ্য, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের নানা অনিয়মের কারণে ইতিমধ্যে সমালোচনা উঠেছে মন্ত্রীর গুটেনব্যার্গকে নিয়ে৷ এর আগে আফগানিস্তানে এক জার্মান সেনার মৃত্যুর তথ্য বিকৃতির ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়৷ আরও জানা গেছে, আফগানিস্তানে যেসব জার্মান সেনারা তাদের পরিবার পরিজনের উদ্দেশ্যে চিঠি লেখেন সেগুলোতেও নাকি নজরদারি চালায় সেনা কর্তৃপক্ষ৷ মাঝে মধ্যে চিঠিতে কাঁচিও চালানো হয় এমন অভিযোগও উঠেছে সম্প্রতি৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়