1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জার্মান জিহাদিরা একটি জার্মান সৃষ্টি

জার্মান জিহাদিরা ইসলামিক স্টেট-এর (আইএস বা আইসিস) সন্ত্রাস অভিযানে অংশগ্রহণ করছে; দেশে ফিরে তারা এ দেশেও আক্রমণ চালাতে পারে, বলে নিরাপত্তা মহলের আশঙ্কা৷ গবেষক গিডো স্টাইনবাখ বিষয়টি নিয়ে একটি বই লিখেছেন৷

ডয়চে ভেলে: জার্মান মুসলিম সমাজে জিহাদি মতাদর্শ কতোটা শিকড় গেড়েছে বলে আপনার ধারণা?

স্টাইনবাখ: বিগত কয়েক বছরে জিহাদি মতাদর্শ ও কার্যকলাপ একটি জার্মান সমস্যায় পরিণত হয়েছে৷ নাইন-ইলেভেনের আততায়ীরা ছিল আরব ছাত্র, যারা ১৯৯২ থেকে ১৯৯৬ সালের মধ্যে জার্মানিতে এসেছিল পড়াশুনা করতে – কিন্তু মূলত তারা স্বদেশের প্রভাবেই ছিল৷ ২০০৬ সাল যাবৎ জার্মানিতে একটি নিজস্ব জিহাদি মহল ক্রমাগত বেড়ে চলেছে, যার সদস্যরা সমাজতত্ত্বের বিচারে জার্মান – অর্থাৎ তাদের শৈশব ও জীবনের একটা বড় অংশ তারা জার্মানিতে কাটিয়েছে৷

Demonstration von Salafisten in Berlin 30.03.2014 neu

‘প্রায় আট বছর ধরে আমরা জার্মান জিহাদিদের নিয়ে বাস করছি’

বহুক্ষেত্রে তাদের এদেশেই জন্ম হয়েছে৷ তবে জাতিগতভাবে তারা মিশ্রিত: তুর্কি, কুর্দ, উত্তর আফ্রিকা থেকে আগত বেশ কিছু আরব, সেই সঙ্গে মুসলমান ধর্মে দীক্ষিত জার্মানরাও আছে; এমনকি রাশিয়া থেকে আগত জার্মান বংশোদ্ভূতদেরও এই জিহাদিদের মধ্যে পাওয়া যাবে৷

ডয়চে ভেলে: জিহাদিদের প্রেরণাটা কি?

স্টাইনবাখ: ২০০৬ সাল থেকেই জার্মান জিহাদিরা পাকিস্তান ও আফগানিস্তান যাচ্ছিল৷ কয়েকজন সোমালিয়াতেও যায় এবং আরো কয়েকজন চেচনিয়া যাবার চেষ্টা করে৷ আজ তারা প্রধানত সিরিয়া ও ইরাকে যাচ্ছে, যার একটি মূল উদ্দেশ্য: বিপন্ন সুন্নি মুসলিমদের পাশে দাঁড়ানো৷ সম্প্রতি একটি দ্বিতীয় উদ্দেশ্য যুক্ত হয়েছে: জার্মানির তরুণ সালাফিরা পুরোপুরি মুসলিম সমাজে বাস করতে চায়, যা তাদের মতে জার্মানি কিংবা আরব দুনিয়া, কোথাওই সম্ভব নয় – শুধুমাত্র সেখানেই সম্ভব, যেখানে জিহাদিরা তাদের ‘শত্রুদের' বিরুদ্ধে সংগ্রামে লিপ্ত৷ অবশ্য শুধুমাত্র অ্যাডভেঞ্চার, কিংবা সহিংসতার নেশা, কিংবা স্রেফ দৈনন্দিন একঘেঁয়েমি থেকে মুক্তি পাবার জন্যও কেউ কেউ জিহাদি হয়৷

Syrien IS Kämpfer in Raqqa

‘বিগত কয়েক বছরে জিহাদি মতাদর্শ ও কার্যকলাপ একটি জার্মান সমস্যায় পরিণত হয়েছে’

ডয়চে ভেলে: জার্মান জিহাদিদের তরফ থেকে কি জার্মান রাষ্ট্র বা সমাজের পক্ষে বিপদের সৃষ্টি হতে পারে?

স্টাইনবাখ: হ্যাঁ, একটা বিপদ আছে, বলে আমার ধারণা, তবে সেটাকে মাত্রাধিক গুরুত্ব দেওয়া ভুল হবে৷ আজ প্রায় আট বছর ধরে আমরা জার্মান জিহাদিদের নিয়ে বাস করছি, যারা আল-কায়েদা এবং অন্যান্য সন্ত্রাসী সংগঠনের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ পেয়েছে৷ তাদের কয়েকজন জার্মানিতে ফেরার পর এখানে আক্রমণ চালানোর পরিকল্পনাও করেছে – তবে সে পরিকল্পনা সবই ব্যর্থ হয়েছে অথবা ব্যর্থ করা সম্ভব হয়েছে৷ বারংবার যে কথাটা বলা হয় – যে এখানে একদিন না একদিন সন্ত্রাসী আক্রমণ ঘটবে – সেটাকে আমি অতিরঞ্জিত বলে মনে করি৷

ইসলাম বিশেষজ্ঞ গিডো স্টাইনবাখ বার্লিনের জার্মান ইনস্টিটিউট ফর ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড সিকিওরিটি অ্যাফেয়ার্স এসডাব্লিউপি-র সঙ্গে যুক্ত৷ ২০০৫ সালের অক্টোবর মাস অবধি তিনি চ্যান্সেলরের দপ্তরে সন্ত্রাসবাদ সংক্রান্ত উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন৷

সাক্ষাৎকার: বেটিনা মার্ক্স/এসি

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়