1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মান গুপ্তচর বিভাগে ইসলামপন্থি আবিষ্কার

কেউ বুঝতে পারেনি, অথচ জার্মানির অভ্যন্তরীণ গুপ্তচর বিভাগের এক কর্মী উগ্র ইসলামপন্থি ধ্যানধারণার প্রভাবে পড়েছেন৷ স্পেনে জন্ম, বর্তমানে জার্মান নাগরিক ঐ কর্মী একটি ইসলামিস্ট চ্যাট সাইটে গোপন তথ্য শেয়ার করেছে, বলে প্রকাশ৷

জার্মানে বলে ‘বুন্ডেসআম্ট ফ্যুর ফেরফাসুংসশুটৎস’, অর্থাৎ সংবিধানের সুরক্ষার জন্য ফেডারাল কার্যালয়, সংক্ষেপে বিএফভি৷ গত বুধবার বিএফএ নিশ্চিত করে যে, ৫১ বছর বয়সের কর্মীটি ‘‘সকলের অজান্তে নিজেকে উগ্রপন্থি মনোভাবে দীক্ষিত করেছে''৷ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ইতিপূর্বেই গুপ্তচরবৃত্তি ও ইসলামপন্থি সন্ত্রাসের পরিকল্পনার সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হয়৷

‘‘স্পষ্টতই আমরা যে ঘটনাটি বিবেচনা করছি, তা-তে এক ব্যক্তি সবার অজান্তে তার ব্যক্তিগত পরিবেশে  উগ্রপন্থি মনোভাবের সংস্পর্শে এসেছে'', জার্মান ডিপিএ সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন বিএফভি-র প্রধান হান্স-গেয়র্গ মাসেন৷ ইতিপূর্বে জার্মান সংবাদ সাপ্তাহিক ‘ডেয়ার স্পিগেল' জানায় যে, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির নিজের পরিবারের মানুষজনেও জানতেন না যে, সে ২০১৮ সালে ইসলমাধর্ম অবলম্বন করেছে৷

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে জার্মানির ড্যুসেলডর্ফ শহরে গ্রেপ্তার করা হয়৷ দৃশ্যত সে একটি উগ্রপন্থি চ্যাট সাইটে আরেকজন ব্যবহারকারীর কাছে গোপন তথ্য প্রকাশ করেছিল৷ এছাড়া সে নাকি উগ্রপন্থিদের উপর পুলিশি অভিযানের সময় ও অন্যান্য খুঁটিনাটি সংগ্রহ করছিল৷

বিএফভি মাত্র গত এপ্রিল মাসে এই সাবেক ব্যাংককর্মীকে নিয়োগ করে৷ জার্মানিতে ক্রমবর্ধমান সালাফি মতাদর্শীদের উপর নজর রাখার জন্য অভ্যন্তরীণ গুপ্তচর বিভাগে যে নতুন টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে, তা-তেই নিয়োগ করা হয় তাকে৷ জার্মান দৈনিক ‘ডি ভেল্ট'-এর খবর অনুযায়ী, লোকটি নাকি বড়াই করেছে যে, তার নিজের অফিসের উপর আক্রমণ চালানোর পরিকল্পনা আছে তার – যদিও সে এ বিষয়ে কোনো বাস্তব পদক্ষেপ নেয়নি, বলে কর্তৃপক্ষের ধারণা৷

সন্দেহভাজন ব্যক্তি দৃশ্যত অনলাইনে লিখেছিল যে, ‘‘অবিশ্বাসীদের'' উপর এ ধরনের আক্রমণ হবে ‘‘আল্লাহর জন্য''৷ চার সন্তানের জনক ব্যক্তিটিকে চার সপ্তাহ ধরে পর্যবেক্ষণ করার পর তার বিরুদ্ধে একটি গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়, ও সেই পরোয়ানার বলে গ্রেপ্তার করা হয়৷

‘‘সব গুপ্তচর বিভাগের মতো (বিএফভি-ও) বিদেশি গুপ্তচর বিভাগ, চরমপন্থি ও সন্ত্রাসবাদীদের অনুপ্রবেশের লক্ষ্য৷ যে কারণে আমাদের মতো একটি নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানকে অনুপ্রবেশকারীদের ব্যাপারে বিশেষভাবে সতর্ক থাকতে হয়'', বলেছেন বিএফভি প্রধান মাসেন৷

এসি/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ)

এ বিষয়ে আপনার কিছু বলার থাকলে, লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন