1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

জার্মান কোচ চূড়ান্ত বাছাই’এর মুখে

অবশ্য সোমবার দক্ষিণ টিরোল’এর একটি সাদামাটা ইটালিয় ফুটবল টীমের বিরুদ্ধে এক ঘণ্টার টেস্ট গেম খেলাতে গিয়ে বালাকের পর ক্রিস্টিয়ান ট্রেশ’কেও হারালেন ইওয়াখিম লোয়েভ৷

default

ইটালির একটি শহরে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ফুটবল

মুশকিলটা এই যে, ঠিক ট্রেশ'কেই বালাকের বিকল্প হিসেবে ভাবা হচ্ছিল৷ ওদিকে এফসি দক্ষিণ টিরোল খেলে থার্ড ডিভিশনে৷ বায়ার্ন মিউনিখের বাছাইরা এখনও এসে পৌঁছয়নি, তা সত্ত্বেও এই নগণ্য প্রতিপক্ষকে ৪-০ গোলে হারাতে কোনো বেগই পেতে হয়নি ডয়েচলান্ড একাদশকে৷ তিনটি গোল করেছে পিওতর ট্রোকোভস্কি, মেসুত ওয়েজিল এবং কাকাও৷ চতুর্থটি ছিল একটি সেমসাউড গোল৷

কিন্তু আট মিনিটের মাথাতেই হড়কে বেড়ায় ধাক্কা খেয়ে পায়ে চোট পেয়ে বসে গেলেন ২২ বছর বয়সী ক্রিস্টিয়ান ট্রেশ, স্টুটগার্টের খেলোয়াড়৷ কাজেই লোয়েভের হাতে এখন মাত্র ২৫ জন প্লেয়ার - তা'ও হবে বায়ার্নরা আসার পরে৷ এই ২৫ থেকেই লোয়েভকে ২৩ জনকে বাছতে হবে দক্ষিণ আফ্রিকা নিয়ে যাওয়ার জন্য৷ কে জানে, হয়তো তিনি এখনও বুন্ডেসলিগা থেকে আরো কাউকে মনোনীত করতে পারেন, যদিও তার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না৷

Fußball Deutsches Team Trainingslager Italien Weltmeisterschaft 2010 Flash-Galerie

চলছে প্রশিক্ষণ-জার্মান জাতীয় দলের

লোয়েভ আপাতত দলের ‘‘কাপিতানো'' বা গোলরক্ষক, কারোরই নাম করতে রাজি নন, অথচ সাংবাদিকদের জানিয়ে দিয়েছেন যে, তাঁর সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়েছে৷ জার্মান মিডিয়ার আন্দাজ কিংবা খবর হল এই যে, বায়ার্ন মিউনিখের ফিলিপ লাম ক্যাপ্টেন হতে চলেছেন৷ গোলে থাকবেন শালকে'র মানুয়েল নয়ার৷ ক্যাপ্টেনকে কেমন হতে হবে, এ'প্রশ্নের জবাবে ইওয়াখিম লোয়েভ'কে বার বার বলতে শোনা গেছে যে, তাকে দলের মধ্যে সংহতি আনতে হবে, এবং বহির্জগতের সামনে দলের প্রতিনিধিত্ব করতে হবে৷ ফিলিপ লাম দু'টি কাজই ভালোই পারেন৷

নয়তো আপাতত অস্ট্রিয়ায় এপ্পানে প্রশিক্ষণ শিবিরে লোয়েভ যে ১৯ জন খেলোয়াড়কে কাছ থেকে দেখলেন, তাদের বিষয়ে কোচ প্রশংসায় পঞ্চমুখ৷ সকলেই নাকি প্রচুর খাটছে, উচ্চাকাঙ্খায় টগবগ করছে৷ কোচও তাদের মাঠে দৌঁড় করিয়েছেন, মাউন্টেন বাইক নিয়ে পাহাড়ের ঢালে আঙুরক্ষেতে সাইকেল চালাতে পাঠিয়েছেন৷ চড়াই-ওৎড়াই ভেঙে ফেরার পর তাদের পায়ের পেশী ঠান্ডা করতে নাকি ১৫০ কিলোগ্রাম বরফ লেগেছে৷ ওদিকে সন্ধ্যেয় মাঠের পাশের জিম থেকে নাকি সরব সঙ্গীতের আওয়াজ পাওয়া গিয়েছে৷ অর্থাৎ দল খোশমেজাজে আছে বলেই মনে হচ্ছে৷

তবে লোয়েভ যে খেলোয়াড়টির সবচেয়ে বেশী প্রশংসা করেছেন, তার নাম কোলোনবাসীদের প্রিয় ‘প্রিন্স পোল্ডি' বা লুকাস পোডোলস্কি৷ সে নাকি ট্রেনিং-এ একেবারে ‘ডয়েচলান্ড-পোল্ডি'-র মতো খেলেছে৷ এবং বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় সে ‘বিস্ফোরণ ঘটাবে', বলে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন ইওয়াখিম লোয়েভ৷

প্রতিবেদন: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার

সংশ্লিষ্ট বিষয়