1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

আফগানিস্তান

জার্মান কনস্যুলেটের সামনে বোমা বিস্ফোরণ

আফগানিস্তানের মাজার-ই শরিফে জার্মান কনস্যুলেটের সামনে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ছয়জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছে৷ হামলার দায় স্বীকার করেছে তালেবান৷ বৃহস্পতিবার রাতের এ হামলায় নিহতের সংখ্যা আরো বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে৷

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী একটি ট্রাক চালিয়ে উত্তর আফগানিস্তানের শহর মাজার-ই শরিফে জার্মান কনস্যুলেটের কাছে চলে যায়৷ সেখানে গিয়েই সে শরীরে বাঁধা বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়৷ ট্রাকটি ছিল বিস্ফোরকে বোঝাই৷ ফলে প্রচণ্ড শব্দে কেঁপে ওঠে চারপাশ৷ আশপাশের অনেক ভবনের জানালা-দরজার কাঁচ ভেঙে পড়ে৷ বিস্ফোরণে এ পর্যন্ত আত্মঘাতী বোমা হামলাকারীসহ মোট ৬ জন নিহত হয়েছে৷

হামলার দায় স্বীকার করে তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন তালেবান জানিয়েছে, গত নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্র কুন্দুসে যে বিমান হামলা চালিয়েছিল তার জবাব দিতেই এ হামলা চালিয়েছে তারা৷ কুন্দুসের সেই বিমান হামলায় ৩০ জন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত এবং ১৯ জন আহত হয়েছিল৷


এদিকে বৃহস্পতিবার মাজার-ই শরিফে জার্মান কনস্যুলেটের সামনে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে জার্মানি৷ পাশাপাশি জার্মান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, কনস্যুলেটে কর্মরত সবাই অক্ষত এবং নিরাপদ আছেন৷

উল্লেখ্য, আফগানিস্তানের কুন্দুসে জার্মান সেনাবাহিনীর ছোট একটি দল রয়েছে৷ মূলত আফগান সৈন্যদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন তাঁরা৷

তবে তালেবান মনে করে গত নভেম্বরে জার্মান গোয়েন্দাদের তথ্য পেয়েই কুন্দুসে বিমান হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র৷ জার্মান কনস্যুলেটের সামনে হামলা চালানোর কারণ জানাতে গিয়ে বার্তা সংস্থা ডিপিএ-কে তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, ‘‘কেন আমরা জার্মানিকে টার্গেট করবো না? জার্মান সৈন্যদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতেই তো যুক্তরাষ্ট্র ওই হামলা চালিয়েছিল৷ উত্তর আফগানিস্তানে এখনো তো তাদের (জার্মানি) ঘাঁটি রয়েছে৷ সেখানে এখনো জার্মান সৈন্য আছে৷’’

    

এসিবি/জেডএইচ (ডিপিএ, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়