1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

জার্মানির একত্রীকরণের ইতিহাস জানতে চাই

‘‘সময়ের অভাবে আপনাদের লিখতে পারি না৷ অসচ্ছল সংসারের ঘানি টানতে টানতে বেলা-অবেলায় আমার পথ চলা৷ তারপরও আপনাদের টিভি অনুষ্ঠান ‘অন্বেষণ' দেখতে ভুল করি না৷''

এই মন্তব্য পাবনার পাঠক-বন্ধু ডা. এস এম এ হান্নানের৷ ডা. হান্নানের প্রস্তাব, আমাদের টিভি অনুষ্ঠানে যেন ফিলিস্তিন প্রসঙ্গে, সৃষ্টির বিস্ময়, শিশুর বিকাশধারা, সংবাদ বিচিত্রা, বিশেষ নিবন্ধ – এগুলি ধারাবাহিক ভাবে প্রচার করা হয়৷ সব শেষে তিনি অনুরোধ করেছেন, ‘‘আমি সংক্ষিপ্তভাবে দুই জার্মানির একত্রীকরণের ইতিহাস জানতে চাই৷''

- ধন্যবাদ ভাই হান্নান, আমাদের টিভি অনুষ্ঠান ‘অন্বেষণ' দেখার জন্য৷ আপনি জানেন যে, অন্বেষণ হচ্ছে বিজ্ঞান বিষয়ক একটি অনুষ্ঠান৷ ‘অন্বেষণ', এ নামই অনেকটা সেকথা জানিয়ে দেয়৷ আর হ্যাঁ, দুই জার্মানির একত্রীকরণ সম্পর্কিত অনেক তথ্য রয়েছে আমাদের ওয়েবসাইটে, সময় সুযোগমতো পড়ে নেবেন, কেমন?


পরের ই-মেলটি পাঠিয়েছেন ঢাকা থেকে আহসান ভাবনা৷ আমাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ‘তোমাকে আমরা কিনেছি, সুতরাং অভিযোগ করবে না' – এই শিরোনামের প্রতিবেদনটি পড়ে তাঁর মন্তব্য, ‘‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে সবাই মিলে কৈফিয়ত চান এ জন্য যে, সৌদি আরবের সরকার নারী শ্রমিক চেয়েছিল৷

আর বাংলাদেশের সরকার বলছে সৌদি গেল নারীরা শারীরিক ভাবে নির্যাতন হবে৷ ডুবাইতে গেলে কি নির্যাতন হবে না? ডুবাইতে আরও বেশি নির্যাতনের শিকার হয় নারীরা৷ তাই সব মা ও বোনকে বলছি, বিদেশে গিয়ে পোলাও-কোরমা খাওয়ার চাইতে দেশে ডাল-ভাত খেতে চেষ্টা করুন৷ সেটা অনেক সুখের, সংসারে শান্তি দেবে৷ তাই দেশের ইজ্জত বাইরে বিক্রি করে দেবেন না৷ সবাই মিলে একটু চেষ্টা করলেই যে সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে৷''

এবারের ই-মেলটি পাঠিয়েছেন ভারতের নতুন দিল্লি থেকে আমাদের নিয়মিত পাঠক সুভাষ চক্রবতী৷ তিনি ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইটের প্রশংসা করেছেন ঠিক এভাবে, ‘‘ওয়েবসাইটে তুলে ধরা ‘জীববৈচিত্রের অসাধারণ মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি' – এ নিয়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পাওয়া ১১টি অসাধারণ ছবির উপস্থাপনা ভীষণ ভালো লাগলো৷ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে নানা প্রতিবেদনের পাশাপাশি ছবিঘরের মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর উচ্চ মানের ছবি প্রদর্শনী ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইটকে নিঃসন্দেহে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে সহায়তা করছে৷''

- সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ আপনাদের সুচিন্তিত মতামত জানানোর জন্য৷ আগামীতেও এভাবেই সাথে থাকবেন, কেমন?

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন