1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মানিতে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বাড়ছে

কখনো থুতু ছিটানো হয় তাঁদের দিকে, কখনো সরাসরি শুরু হয় কিল-ঘুসি, কখনো বা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে অপদস্থ করা হয় তাঁদের৷ এ সবের শিকার হচ্ছেন শিক্ষকরা৷ জরিপ বলছে, জার্মানিতে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বাড়ছে৷

বড় দুশ্চিন্তার বিষয় হলো, প্রধানত শিক্ষার্থীরাই এভাবে ‘টার্গেট' করছে শিক্ষকদের৷ কখনো কখনো আবার ছাত্র বা ছাত্রীর অভিভাবকও চড়াও হচ্ছেন৷ গত বছর বেশ কিছু ঘটনা শুরু হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আর শেষ হয়েছে আদালতে৷

তার একটিতে ১৪ বছর বয়সি এক ছাত্র তার শিক্ষককে জুতোর ফিতা দিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে মেরে ফেলার চেষ্টা করে৷ ১৫ বছর বয়সি আরেক ছাত্র একসঙ্গে চার জন শিক্ষকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুসি মারতে শুরু করে৷ আরেকটি ঘটনায় এক শিক্ষার্থীর মা হামলা চালায় শিক্ষিকার ওপর৷

সম্প্রতি ফোরসা রিসার্চ গ্রুপ নামের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান জরিপ চালিয়ে দেখেছে, জার্মানিতে শিক্ষকদের বিরুদ্ধে এমন সহিংসতার ঘটনা বেড়েই চলেছে৷ জার্মানির জাতীয় শিক্ষক ইউনিয়ন (ভিবিই)-এর পক্ষ থেকে জরিপটি চালিয়ে তারা দেখেছে, প্রতি ১০০ জন শিক্ষকের মধ্যে অন্তত ৬ জন কোনো-না-কোনো সময় অন্তত একবার হামলার শিকার হয়েছেন৷ সে হিসেবে জার্মানির অন্তত ৪৫ হাজার শিক্ষক এমন অনভিপ্রেত, তিক্ত অভিজ্ঞতার শিকার৷

ভিবিই স্বভাবতই বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন৷ ভিবিই-র প্রধান উডো বেকমান উদ্বেগ নিয়েই ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ‘‘এমনকি প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষার্থীরাও শিক্ষকদের বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে শুরু করেছে৷ আমি সত্যই হতবাক৷''

উডো বেকমান জানান, আক্রান্ত শিক্ষকদের দুই তৃতীয়াংশই মনে করেন, তাঁদের নিরাপত্তার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রশাসনের আরো উদ্যোগী ভূমিকা রাখা উচিত৷

সাম্প্রতিক সময় জার্মানিতে শিক্ষকদের পাশাপাশি পুলিশ কর্মকর্তা, দমকল কর্মী এবং অন্যান্য সরকারি কর্মচারীদের বিরুদ্ধেও সহিংসতা বেড়েছে৷ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণা্লয়ও বিষয়টি নিয়ে উদ্বিগ্ন৷ সম্প্রতি জার্মানির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টোমাস ডেমেজিয়ের জানিয়েছেন, এমন সহিংসতা রোধে নতুন কিছু পরিকল্পনা বিবেচনা করে দেখছে সরকার৷

সাবরিনা পাব্স্ট/এসিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়