1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

জার্মানিতে দরিদ্র পরিবারের শিশুদের সুযোগ বাড়ছে

ব্যার্টেলসমান ফাউন্ডেশনের একটি নতুন রিপোর্ট অনুযায়ী ২০০২ সাল যাবৎ সংখ্যালঘু ও কম-আয়ের পরিবারের পরিবারের ছেলে-মেয়েদের জন্য সুযোগ লক্ষ্যণীয়ভাবে বেড়েছে৷

২০০২ সালে যতোজন শিশু স্কুলের পড়া শেষ না করে স্কুল ছাড়ত, আজ তাদের সংখ্যা অনেক কম, বলছে ব্যার্টেলসমান ফাউন্ডেশনের রিপোর্ট৷ স্কুলশেষের ‘‘আবিটুর'' পরীক্ষাতেও পাশ করছে আরো বেশি ছাত্রছাত্রী এবং উচ্চশিক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান করছে৷

কিন্তু যে সব শিশুদের জার্মান পাসপোর্ট নেই অথবা যাদের পরিবারের আয় কম, তাদের ‘‘আবিটুর'' পাশ করার ও ইউনিভার্সিটিতে যাবার সম্ভাবনা অপেক্ষাকৃতভাবে কম৷

২০০২ সালে সামগ্রিকভাবে স্কুলছাড়া ছেলে-মেয়েদের অনুপাত ছিল ৯ দশমিক ২ শতাংশ, ২০১৪ সালে যা নেমে দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৮ শতাংশে৷ জার্মান নাগরিকত্ব বিহীন ছেলে-মেয়েদের ক্ষেত্রে এই পরিসংখ্যান নামে ১৬ দশমিক ৭ শতাংশ থেকে ১২ দশমিক ১ শতাংশে – এক্ষেত্রে হ্রাসের হার কিন্তু জার্মান নাগরিকত্বধারী ছেলে-মেয়েদের তুলনায় কম৷

২০১২ সালে থেকে ব্যার্টেলসমান নিধি এই ‘সমান সুযোগ' রিপোর্টটি পেশ করে আসছে৷ এবারকার রিপোর্ট বলছে যে, ২০০২ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে তথাকথিত ‘‘সারাদিনের স্কুলগুলির'' অনুপাত বেড়েছে ১০ শতাংশ থেকে ৩৭ দশমিক ৩ শতাংশে৷ এই সারাদিনের স্কুলগুলিতে নাকি শিক্ষকবৃন্দ নিম্ন আয়ের পরিবারের ছাত্রছাত্রী, অথবা যাদের জার্মান ভাষা ও সংস্কৃতির সঙ্গে বিশেষ পরিচয় নেই, তাদের প্রতি অধিকতর মনোযোগ দেবার সুযোগ পান৷

এসি/ডিজি (ডিপিএ, এপি)  

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়