1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

জার্মানিতে এক নারীর গুলি উৎসব, নিহত ৪

জার্মানির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সীমানা ঘেঁষে থাকা ছোট্ট শহর লোয়েরাখ৷ অধিবাসীর সংখ্যা প্রায় ৪৮ হাজার৷ সেখানেই এক মহিলার গুলিতে মারা গেলেন তিনজন৷ এর মধ্যে রয়েছে চার বছরের একটি ছেলেও৷ পরে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারান ঐ মহিলা৷

default

এই হাসপাতালেই এলোপাথাড়ি গুলি চালায় মহিলাটি

ঘটনার শুরু রবিবার বিকেলে৷ লোয়েরাখ পুলিশের মুখপাত্র অয়গেন ভিসলার বলছেন, ‘‘একটি অ্যাপার্টমেন্টে বিস্ফোরণ ও তা থেকে আগুন লাগার খবর পেয়ে দমকল কর্মীরা সেখানে গেলে গুলি চালানোর শব্দ শুনতে পান৷ এরপর তাঁরা দেখেন এক মহিলা সেখান থেকে বেরিয়ে রাস্তা পার হয়ে হাসপাতালের দিকে ছুটে যাচ্ছে৷ হাসপাতালে ঢোকার পর পুলিশের মুখোমুখি হলে তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকেন ঐ মহিলা৷ এতে হাসপাতালের এক কর্মী নিহত হয়৷ পরে পুলিশের গুলিতে ঐ মহিলাও নিহত হন৷ এই ঘটনায় এক পুলিশ কর্মকর্তাও গুরুতর আহত হয়েছেন৷''

এদিকে দমকল কর্মীরা অ্যাপার্টমেন্ট থেকে একজন মধ্যবয়সি লোক ও চার বছরের একটি ছেলের লাশ উদ্ধার করে৷ ধারণা করা হচ্ছে বিস্ফোরণ ও আগুন লাগার ঘটনার আগেই তাঁরা মারা গিয়ে থাকতে পারে৷ কারণ তাঁদের দুজনের শরীরেই গুলির আঘাত পাওয়া গেছে৷

কী কারণে ঘটনাটি ঘটলো সেটা এখনো জানা যায়নি৷ তবে নিহত লোকটি ঐ মহিলার স্বামী এবং ছেলেটি তাঁর সন্তান হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে৷

উল্লেখ্য, গত বছরের মার্চ মাসে জার্মানিতে এমনই আরেকটি ঘটনায় টিম ক্রেশ্মার নামের এক তরুণের গুলিতে ১৫ জন নিহত হয়েছিল৷ পরে টিম নিজেই নিজেকে গুলি করে৷ এই ঘটনার জন্য মাত্র গত সপ্তাহেই বিচার শুরু হয়েছে টিমের বাবার৷ কারণ তাঁর বন্দুকের গুলিতেই টিম এই কাণ্ডটি করেছিল৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়