1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জার্মানিতে আইএস-এর কর্মকাণ্ড নিষিদ্ধ

জার্মানিতে আইএস-এর পক্ষে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ সকল প্রকারের কর্মকাণ্ড নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷ ওদিকে ইরাক সরকারের ‘আইএস' বিরোধী যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের পর ফ্রান্স এবং দশটি আরব দেশও তাদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে৷

গত জুনে ইসলামিক স্টেট (আইএস বা আইসিস) ইরাকের পূর্বাঞ্চলের বেশ বড় একটা অংশ দখল করে নেয়ার পর, সে দেশে আবার বিমান বাহিনী পাঠায় যুক্তরাষ্ট্র৷ গত আগস্ট থেকে আইএস-এর ওপর হামলা চালিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্রের বিমানসেনারা৷ বৃহস্পতিবার জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে বিমান হামলা আরো জোরদার করে আইএস-কে পরাস্ত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা৷ এ যুদ্ধের জন্য প্রাচ্য আর পাশ্চাত্যের প্রতি ঐক্যের আহ্বানের কথাও ছিল তাঁর ভাষণে৷ ওবামার ভাষণের পরের দিনই (শুক্রবার) ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রঁসোয়া ওলঁদ গিয়েছেন বাগদাদে৷ ফ্রান্স অবশ্য আগেই জানিয়েছে, আইএস-এর বিরুদ্ধে প্রয়োজনে তারাও বিমান হামলা চালাবে৷ সোমবার ইরাকের পরিস্থিতি নিয়ে একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলন হবে ফ্রান্সে৷

ওদিকে সৌদি আরবসহ দশটি আরব দেশ জানিয়েছে যে, নিজ নিজ দেশে তারাও আইএস-এর বিরুদ্ধে কঠোর হবে৷ বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির সঙ্গে বৈঠক শেষে এক বিবৃতির মাধ্যমে এ কথা জানানো হয়৷ দশটি দেশের মধ্যে সৌদি আরব ছাড়াও রয়েছে বাহরাইন, কুয়েত, ওমান, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, মিশর, জর্ডান ও লেবানন৷ বিবৃতিতে বলা হয়, তাদের দেশ থেকে যাতে কেউ আইএস-এর সঙ্গে যুদ্ধে অংশ নিতে যেতে না পারে, আইএস-এর কাছে যাতে অর্থসাহায্য না যায়, আইএস বা অন্য কোনো জঙ্গি সংগঠনের হয়ে যাতে ঘৃণা এবং হত্যার রাজনীতির আদর্শ প্রচারিত না হয় তা নিশ্চিত করবে দেশগুলো৷

জার্মানিতেও এ সব নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷ শুক্রবার জার্মানির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী টোমাস দে মেজিয়ের বলেছেন, জঙ্গি সংগঠন ‘ইসলামিক স্টেট' জার্মানির অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার জন্যও একটা হুমকি৷ তাই জার্মানিতে আইএস-এর সব ধরনের কর্মকাণ্ড নিষিদ্ধ করেছে জার্মানি৷

দে মেজিয়ের-এর কথায়, ‘‘শুধুমাত্র আইএস-এর সদস্যপদ গ্রহণের ওপরেই নয়, ইসলামিক স্টেট নিয়ে কোনোরকম প্রচার-প্রচারণা, সোশ্যাল মিডিয়ায় এর সমর্থন অথবা আইএস-কে অর্থ সাহায্য দেয়া – সব কিছুই নিষিদ্ধ করা হলো৷''

এই নিষেধাজ্ঞা আন্তর্জাতিক স্তরে ‘সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে' একটি উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ, বলেন জার্মানির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন