1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জার্মানিতেও শুরু হতে পারে জঙ্গি আক্রমণ?

এবার কি ইসলামি জঙ্গিরা জার্মানিতে আক্রমণ শুরু করবে? এ আশঙ্কা এতদিন খুব গুরুত্ব না পেলেও এখন পাচ্ছে৷ খোদ জার্মান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ই নাকি মনে করছে, যে কোনো সময় আক্রান্ত হতে পারে জার্মানি৷

জার্মানির সবচেয়ে বেশি প্রচারিত সংবাদপত্র ‘বিল্ড' এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এই আশঙ্কার কথা৷ জার্মানির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নথিপত্রেই এমন আশঙ্কার উল্লেখ রয়েছে বলে দাবি করছে পত্রিকাটি৷ সদ্য প্রকাশিত প্রতিবেদনটি জনমনেও শঙ্কা ও আতঙ্ক বাড়াতে পারে৷

বৃহস্পতিবার তাদের অনলাইন সংস্করণে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে ‘বিল্ড'৷ প্রতিবেদনে স্পষ্টভাবেই দাবি করা হয়, জার্মানির সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও কর্মীরা যে কোনো মুহূর্তে জঙ্গি আক্রমণের শিকার হতে পারে বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আশঙ্কা করছে৷

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের নথিপত্রেই এমন আশঙ্কার উল্লেখ রয়েছে বলে দাবি করায় ‘বিল্ড'-এর প্রতিবেদনটি এ মুহূর্তে তুমুল আলোচনায়৷ বুধবার এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে জার্মানির আইনমন্ত্রী হাইকো মাস অবশ্য উল্টো কথাই বলেছিলেন৷ এআরডি-তে প্রচারিত সাক্ষাৎকারে মন্ত্রী বলেন, এক্ষুনি জঙ্গি হামলা হতে পারে এমন ইঙ্গিত তাঁরা এখনো পাননি৷

তবে গত কয়েকদিন ধরে জার্মানির আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও নিরাপত্তা সংস্থাগুলো সতর্কাবস্থাতেই রয়েছে৷ ইস্তানবুলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ১০ জন জার্মান নাগরিক নিহত হওয়ার পর থেকেই জার্মানিতে এই সতর্কাবস্থা বিরাজ করছে৷

তুরস্কের ইস্তানবুল শহরের এক পর্যটন কেন্দ্রে চালানো সেই হামলায় কমপক্ষে ১০ জন নিহত এবং ১৫ জনের মতো আহত হয়৷ নিহতদের সবাই জার্মান পর্যটক৷ আহত ১৫ জনের মধ্যেও ছয় জনই জার্মান৷ বাকি নয়জনের মধ্যে একজন নরওয়ের, একজন দক্ষিণ কোরিয়ার এবং একজন পেরুর নাগরিক বলে জানা গেছে৷ তুরস্ক সরকার এ হামলার জন্য তথাকথিত ইসলামি জঙ্গি সংগঠন ‘ইসলামিক স্টেট' বা আইএস-কে দায়ি করেছে৷

এদিকে তুরস্ক থেকে সব জার্মান পর্যটক দেশে ফিরছেন৷ বুধবার তুরস্কে তাঁদের ভিড় এবং পর্যটনকেন্দ্রগুলো এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছিল জার্মান সরকার৷

বৃহস্পতিবারই অবশ্য নতুন এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৫ জন নিহত এবং ৩৯ জন আহত হয়েছে৷ চিনার জেলার দিয়ারবাকির অঞ্চলের পুলিশ স্টেশনে চালানো হয় এই হামলা৷ কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি পিকেকে-কে এ হামলার জন্য দায়ী মনে করছে তুর্কি সরকার৷

এসিবি/ডিজি (এএফপি, রয়টার্স, ডিপিএ)

জার্মানিতে কি সত্যিই জঙ্গি আক্রমণ হতে পারে? প্রিয় পাঠক, এ সম্পর্কে নিচে আপনার মতামত জানান৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়