1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

জার্মানরা রুটি খেতে ভালোবাসে

‘‘পাউরুটির দেশ জার্মানি' প্রতিবেদনটি খুব ভালো লাগল, শুধু সকালের নাস্তায় নয়, রাতের খাবারে ও জার্মানরা পাউরুটি খায় – এটা খুব ভালো৷ কারণ এটা বেশি মোটা হয়ে যাওয়া থেকে কিছুটা রক্ষা করে৷''

এই মন্তব্য পাঁচগ্রাম, জয়পুর হাটের পাঠক সাবিনা জামানের৷ তাঁর অনুরোধ, তাঁকে যেন আবারো ‘অন্বেষণ' কুইজ বিজয়ী করে পুরস্কার পাঠানো হয়৷

- বোন সাবিনা, প্রথমেই ধন্যবাদ আমাদের ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনটি ভালো লাগার কথা জানানোর জন্য৷ আপনার কাছে আমাদের প্রশ্ন, আপনার কাছে যদি আবার পুরস্কার পাঠানো হয় সেটা কি আপনি শুল্ককর ছাড়া হাতে পাবেন? কারণ আপনার প্রাপ্য পুরস্কার দেওয়ার সময় অন্যায়ভাবে শুল্ককর দাবি করার কারণে আপনি তো আমাদের কাছে সেটা ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছেন৷ আমরা ধরে নিচ্ছি কিছুদিনের মধ্যেই আইপডটি আমাদের হাতে আসবে৷ আমরা দ্বিতীয়বার সেটাই পাঠাতে পারি, কিন্তু আপনি যে তা শুল্ককর ছাড়া হাতে পাবেন, তার কি কোনো গ্যারান্টি আছে? কাজেই আবার পাঠিয়ে কী লাভ, আপনিই বলুন?

উথালি বাজার, চুয়াডাঙ্গা থেকে বন্ধু হায়দার মাস্টার আমাদের কাছে ই-মেল করেছেন তাঁর নিজের এবং অন্যান্য শিক্ষকদের জন্য আগামী বছরের ক্যালেন্ডার পাঠনোর জন্য৷

- ভাই হায়দার মাস্টার, আমাদের হাতে ক্যালেন্ডার থাকলে অবশ্যই আমরা পাঠাতাম৷ আপনি নিশ্চয়ই জানেন গত কয়েক বছর যাবত ডয়চে ভেলে থেকে আর আগের মতো ক্যালেন্ডার বের করা হচ্ছে না৷ ডয়চে ভেলে থেকে প্রতিটি শ্রোতা ক্লাবের জন্যই ক্যালেন্ডার পাঠানো হতো একটা সময়৷ কিন্তু সে যে অনেক আগের কথা ভাই! এখন শুধুমাত্র অন্বেষণ কুইজে বিজয়ী বন্ধুদের জন্য সপ্তাহে একটি করে পুরস্কার পাঠানো হয়৷

তবে নিয়মিত পাঠক-বন্ধুদের কাছে উপহার না পাঠালেও, ডয়চে ভেলে আপনাদের বিশ্বের নানা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছে প্রতিদিন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে৷ আপনি একজন শিক্ষক হিসেবে যা আপনার পেশাগত জীবনেও কাজে লাগাতে পারেন৷ আমাদের অনুরোধ, ডিডাব্লিউ-র কথা আপনি আপনার স্কুলের ছাত্রদেরও জানাবেন, কেমন? ভালো থাকুন, যোগাযোগের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ৷

ঢাকা সেনানবিাস থেকে মো. সোহেল রানা হৃদয় লিখেছেন, ‘‘আমার ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা নেবেন৷ আশা করছি সবাই ভালো আছেন৷ আমরাও ভালো আছি৷ বিশ্বের উঁচু ভবেনর ছবিঘরটি বেশ ভালো লেগেছে, ধন্যবাদ৷''​

পরের ই-মেল লিখেছেন পাঠক সুভাষ চক্রবর্তী৷ নতুন দিল্লি থেকে তিনি লিখেছেন, ‘‘যুক্তরাষ্ট্রে নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ কিশোরকে গুলি করে হত্যার ঘটনা পরবর্তী বর্ণ বৈষম্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ, বিশ্বব্যাপী নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধ করতে জাতিসংঘের উদ্যোগে গৃহীত নানা কর্মসূচি, নারী নির্যাতন বর্জন দিবসের ওপর সংবাদভাষ্য এবং প্রাসঙ্গিক ব্লগ, ইউরোপের অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে নতুন উদ্যোগ – এই সব উল্লেখযোগ্য পরিবেশনাগুলি পড়ে উপকৃত হলাম৷ তিন বছর পর নেপালে চলমান ১৮তম দক্ষিণ এশীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সম্মেলন (সার্ক)-এর ওপর আলোকপাত বিশেষ করে উল্লেখ করার মতো৷ সুভাষ চক্রবর্তী, নতুন দিল্লি, ভারত৷''

- লেখার জন্য সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন