1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

উত্তর কোরিয়া

জাপান সাগরে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সাক্ষাতের একদিন আগে আবার একটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করল উত্তর কোরিয়া৷

ক্ষেপণাস্ত্রটি ৬০ কিলোমিটার ওড়ার পর জাপান সাগরে গিয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া৷ উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলের সিনপো শহর থেকে বুধবার সকালে এটি নিক্ষিপ্ত হয় বলে সৌলের জয়েন্ট চিফ অফ স্টাফ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন৷

দৃশ্যত উত্তর কোরিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রকেটের উড়ালের বিশ্লেষণ করে তা কী ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র ছিল, তা নির্ধারণ করার চেষ্টা করছে৷ মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্রাথমিক বিবেচনায় এটি ছিল একটি কেএন-১৫ মাঝারি পাল্লার ব্যালিস্টিক মিসাইল৷ এর অর্থ ক্ষেপণাস্ত্রটি ‘সলিড ফুয়েল' ব্যবহার করে, যার ফলে নিক্ষেপের প্রস্তুতি নিতে বেশি সময় লাগে না এবং এ কারণে এই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের খোঁজ রাখা শক্ত৷

জাপানের প্রতিবাদ

জাপান উত্তর কোরিয়ার কাছে প্রতিবাদ দাখিল করছে বলে চিফ ক্যাবিনেট সেক্রেটারি ইওশিহিদে সুগা এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন৷ তিনি বলেন, জাপানের পক্ষে উত্তর কোরিয়ার উত্তরোত্তর প্ররোচনামূলক কার্যকলাপ সহ্য করা একেবারেই সম্ভব নয়৷

জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ‘জোরালো নিন্দা' করেছেন৷ এই ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ (জাপানের) ‘‘জাতীয় নিরাপত্তার বিরুদ্ধে একটি গুরুতর প্ররোচনামূলক পদক্ষেপ এবং আমাদের পক্ষে তা বরদাস্ত করা সম্ভব নয়,'' বলেও উল্লেখ করেছেন আবে৷

দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপ্রধানের বাসভবন ‘ব্লু হাউস' থেকে জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের একটি বৈঠকের ডাক দেওয়া হয়েছে৷ দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে, এই ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ ‘‘নিরাপত্তা পরিষদের বিভিন্ন প্রস্তাবের প্রতি একটি রূঢ় চ্যালেঞ্জ... এবং এমন একটি পদক্ষেপ, যা আন্তর্জাতিক রাষ্ট্রসমাজ তথা কোরীয় উপদ্বীপের শান্তি ও নিরাপত্তার পক্ষে একটি ঝুঁকি''৷

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র একাই ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইতিপূর্বে হুমকি দিয়েছেন যে, চীন যদি উত্তর কোরিয়াকে সংযত করতে সাহায্য না করে, তাহলে যুক্তরাষ্ট্র একাই ব্যবস্থা নেবে৷ ট্রাম্প এ সপ্তাহেই চীনের রাষ্ট্রপ্রধান শি জিনপিং-এর সঙ্গে মিলিত হচ্ছেন৷

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন শুধুমাত্র উত্তর কোরিয়ার আরেকটি  ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের নিন্দা জানানো ছাড়া বেশি কিছু বলেননি৷ ‘‘মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়া সম্পর্কে যথেষ্ট বলেছে৷ আমাদের আর কিছু বলার নেই,'' টিলারসন তাঁর বিবৃতিতে বলেন৷

এসি/এসিবি (এএফপি, রয়টার্স, এপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়