1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জাপানে তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ছে

জাপানে পরমাণু কেন্দ্রে তৃতীয় বিস্ফোরণের ঘটনার পর তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ছে, যেটা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ বলে বলছেন খোদ সরকারি কর্মকর্তারাই৷ এদিকে জাপানের ঘটনায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে জার্মানি৷

default

ফুকুশিমার পরমাণু কেন্দ্রে বিস্ফোরণের ছবি, স্যাটেলাইট থেকে

সর্বশেষ পরিস্থিতি

মঙ্গলবার সকালে জাপানের দাইচি পরমাণু কেন্দ্রের দুই নম্বর চুল্লিতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে৷ যে কারণে তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে৷ এবং বাতাসের মাধ্যমে তা টোকিও'র দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে৷ সরকার বলছে, এই তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ৷ তাই ঐ পরমাণু কেন্দ্রের ৩০ কিলোমিটারের মধ্যে সব মানুষকে হয় সরে যেতে, না হয় ঘরে থাকতে বলা হয়েছে৷ তবে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা আইএইএ বলছে, তেজস্ক্রিয়তার মাত্রা ধীরে ধীরে অনেক কমে এসেছে৷ এদিকে পরমাণু কেন্দ্রের চার নম্বর চুল্লিতেও আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে আজ৷ আর ৫ ও ৬ নম্বর চুল্লিগুলো উত্তপ্ত হয়ে উঠছে বলে জানিয়েছেন সরকারের এক মুখপাত্র৷ ফলে দেখা যাচ্ছে, পরমাণু কেন্দ্রের ছয়টি চুল্লিতেই কোনো না কোনো সমস্যা দেখা দিয়েছে৷ কেননা এর আগে ১ ও ৩ নম্বর চুল্লিতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছিল৷

Flash-Galerie Japan nach dem Erdbeben und Tsunami

বিধ্বস্ত জাপান

মানুষের মধ্যে প্রতিক্রিয়া

ভয়ে মানুষ টোকিও ছেড়ে যাচ্ছে৷ কেউ বা বেশি করে খাবার কিনে ঘরেই থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ কয়েকটি দেশ তাদের দূতাবাসের কর্মীদের নিরাপদ জায়গায় চলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে৷ যেমনটা করেছে বাংলাদেশও৷ পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি আজ সাংবাদিকদের বলেছেন যে, তারা খবর পেয়েছেন যেখানে বাংলাদেশ দূতাবাস অবস্থিত সেটা বিপদমুক্ত নয়৷ তাই দূতাবাসের কর্মীদের নিরাপদ জায়গায় সরে যেতে বলা হয়েছে৷ এছাড়া জাপানে থাকা ১২ হাজার বাংলাদেশিকেও সরে যেতে বলা হয়েছে৷ টোকিওতে থাকা বিভিন্ন কোম্পানিও তাদের কর্মীদেরও নিরাপদে সরে যেতে বলেছে৷ এদিকে জার্মানির বিমান সংস্থা লুফটহানসা টোকিওতে বিমান না নামিয়ে পাশের কোনো শহরে নামানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷

জার্মানির প্রতিক্রিয়া

গত দুই দিনে দু'টি সিদ্ধান্ত দিয়েছেন চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল৷ গতকাল সোমবার তিনি পরমাণু কেন্দ্রগুলির মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত আপাতত তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন৷ আর আজ মঙ্গলবার তিনি সরাসরি পুরানো সাতটি পরমাণু কেন্দ্র বন্ধের ঘোষণা দিলেন, যেগুলো ১৯৮০ সালের আগে থেকে চালু রয়েছে৷ ম্যার্কেল বলছেন, এগুলো আগামী তিনমাস বন্ধ থাকবে৷ তবে এরপর এগুলো আবার চালু হবে কি না তা এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না৷ তবে স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে এই মাসে জার্মানির তিনটি রাজ্যে নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে৷ সেগুলোতে সাফল্য পেতেই ম্যার্কেল এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন