1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জাতিসংঘের শান্তি সেনারা হুমকির মুখে

গতমাসে আইভরি কোস্টে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিরপেক্ষ না হওয়ায় শুরু হয়ে যায় লাগাতার বিক্ষোভ এবং আন্দোলন৷ দুশো জন মানুষ প্রাণ হারিয়েছে ইতিমধ্যে৷ বর্তমান প্রেসিডেন্ট লোরোঁ বাগবো তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বীর জয় মনতে রাজি নন৷

default

ভিসা নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে বাগবো দম্পতির ওপর

ক্রমশ দেশটিতে গৃহযুদ্ধ দেখা দেওয়ার আভাস পাওয়া যাচ্ছে৷ বান কি মুন আইভরি কোস্টের পরিস্থিতি নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন৷ এছাড়া জাতিসংঘের উপমহাসচিব এ্যালেন লোরয় জানিয়েছেন, শান্তি রক্ষায় নিয়োজিত সেনাদের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না৷ খাবার থেকে শুরু করে পেট্রল সবকিছুই রয়েছে এই তালিকায়৷ এছাড়া তিনি আরো বলেন, ‘‘আইভরি কোস্টে অন্যান্য দেশ থেকে ভাড়াটে সেনা এসেছে বলে উল্লেখ করা হচ্ছে৷ ধারণা করা হচ্ছে এরা লাইবেরিয়া এবং এ্যাঙ্গোলা থেকে এসেছে৷ কারণ এরা স্থানীয় ভাষার সঙ্গে পরিচিত নয়৷ এরা যে কোন মুহূর্তে হামলা চালাতে পারে, এরকম আশঙ্কাও করা হচ্ছে৷ এদের লক্ষ্যবস্তু হতে পারে সাধারণ মানুষ এবং জাতিসংঘের কর্মীরা৷''

UN-Generalsekretär Ban Ki Moon vor der Vollversammlung

শান্তি সেনাদের সামনে আসছে কঠিন সময়

বাগবো মুখ খুললেন

ইউরোপীয় ইউনিয়ন সহ বিশ্বের অন্যান্য রাজনীতিক নেতারা মনে করছেন লোরোঁ বাগবো নয় নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী আলাসান উয়াতারা৷ দেশের এই পরিস্থিতিতে কী বলছেন প্রেসিডেন্ট জানান, ‘‘ আমি দেশের মানুষদের শান্ত থাকার জন্য অনুরোধ করছি৷ জাতিসংঘ এবং ফরাসিরা আমাদের দেশ থেকে চলে যাবে৷ আমি বিরোধী দলের নেতা উয়াতারার সঙ্গে আলোচনায় বসতে আগ্রহী৷ এমনকি যে সব জঙ্গি উয়াতারাকে সাহায্য করেছে তাদের সঙ্গেও৷''

Elfenbeinküste UN Soldaten

আইভরি কোস্টে জাতিসংঘের শান্তি সেনা

বলা প্রয়োজন, জার্মান এবং ফ্রান্স তার নাগরিকদের আইভরি কোস্ট ছাড়ার পরামর্শ দিয়েছে৷ জাতিসংঘ ১০ হাজার শান্তি সেনা আইভরি কোস্টে পাঠিয়েছে৷ রাজধানী আবিজানের জাতিসংঘের দপ্তরে উয়াতারার আহত সমর্থকদের আশ্রয় দেওয়া হচ্ছে৷ তাদের চিকিৎসাও চলছে সেখানে৷ বাগবো সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এমিল গুরিয়েলু এক প্রকার হুমকি দিয়েই বলেছেন, ‘‘আমাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে দেশে যদি এত সেনা অবস্থান করে, তাহলে কোন অবস্থাতেই আমরা সহযোগিতা করবো না৷ এর অর্থ হল কোন ধরণের আলোচনায় এরা আসতে পারবে না৷''

Robert Zoellick Präsident der Weltbank

আইভরি কোস্টের সঙ্গে অর্থের লেনদেন আপাতত বন্ধ - জোয়েলিক

নিষেধাজ্ঞার মুখে আইভরি কোস্ট

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মতে গতমাসের নির্বাচনে আলাসান উয়াতারা বিজয়ী হয়েছেন৷ এমনকি জাতিসংঘ আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে যে উয়াতারাই নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট৷ তবে এসব কথা শুনতে নারাজ বাগবো৷ ইউরোপীয় ইউনিয়ন বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আলাপ আলোচনা করছে৷ এছাড়া বাগবো, তাঁর স্ত্রী এবং ১৮জন সমর্থককে ভ্রমণের জন্য ভিসা দেওয়া হবে না জানানো হয়েছে৷ এদিকে বিশ্ব ব্যাংক জানিয়েছে, আইভরি কোস্টের জন্য সংস্থান করা অর্থের লেনদেন আপাতত বন্ধ রাখা হচ্ছে৷ বিশ্ব ব্যাংকের সভাপতি রবার্ট জোয়েলিক বুধবার নিজে এই তথ্য দেন৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: আবদুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়