1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জলাবদ্ধতা

বছরের পর বছর কথা হলেও বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার জলাবদ্ধতা সমস্যার কোনো সুরাহা হচ্ছে না৷ একটু ভারী বৃষ্টি হলেই পানির নিচে চলে যায় সব৷ বিশ্লেষকরা বলছেন, ঢাকার পানি সরে যাওয়ার কোনো পথই খোলা নেই৷ তাহলে জলাবদ্ধতা হবে না কেন?

ঢাকায় সাধারণত ২৪ ঘন্টায় ৪০ মিলিমিটারের নিচে বৃষ্টি হলে জলাবদ্ধতা হয় না৷ আর এবার জুন মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহেই ঢাকায় ২৪ ঘন্টায় ১৩৩ মিলি মিটার বৃষ্টির রেকর্ড আছে৷ এবার বর্ষার আগে থেকেই বৃষ্টির পরিমান বেশি৷ আর সামনে পড়ে আছে পুরো বর্ষা ঋতু৷ তাই আগের হাঁটু পানির জলাবদ্ধতা এখন কোমড় পানির দিকে যাচ্ছে৷ বৃষ্টি একটু বেশি হলেই ঢাকার সড়কে নৌকা চলে৷ সড়ক পথের যানবাহন পানি ঢুকে বন্ধ হয়ে যায়৷ একমাত্র ভরসা রিকশা৷ তাও পানিতে তলিয়ে যাওয়া খানাখন্দে ভরা সড়কে চলতে গিয়ে যাত্রীসহ প্রায়ই উল্টে যায়৷ কাদাপানিতে একাকার হয়ে যান রিকশাযাত্রী৷ গত বছরেও ঢাকার শান্তিনগর এলাকা ছিল জলাবদ্ধতার মূল কেন্দ্র৷ কিন্তু এবার বর্ষায় তার উল্টো চিত্র দেখা গেছে৷ অন্য এলাকায় জলাবদ্ধতা হলেও শান্তিনগরে তেমন হয় না৷ ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন জানায়, বৃষ্টি হলেই এই এলাকায় হাঁটু পানি সৃষ্টি হতো৷ দীর্ঘ সময় শেষেও এই পানি সরত না৷ এ অবস্থায় বড় একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে দক্ষিণ সিটি৷ ফলে চলতি বর্ষা মৌসূমে শান্তিনগরের জলাবদ্ধতা প্রায় ৮০ ভাগ কমে গেছে৷ মগবাজার মৌচাক ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ শেষ হলে শান্তিনগরের জলাবদ্ধতার পরিমাণ শূন্যের কোঠায় নেমে আসবে বলে আশা দক্ষিণ সিটির৷