জলবায়ু পরিবর্তন থেকে যে বিপদ ঘনাচ্ছে | অন্বেষণ | DW | 12.02.2016
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

জলবায়ু পরিবর্তন থেকে যে বিপদ ঘনাচ্ছে

জলবায়ু পরিবর্তন কথাটা আজকাল ঘুরেফিরে হাজার বার আসে৷ কিন্তু এই পৃথিবীতে মানুষের জীবন ও সভ্যতার পক্ষে যে সেটা কত বড় বিপদ, তা কি আমরা উপলব্ধি করি? তাহলে এই বিপদ এড়ানোর পন্থাই বা কী?

ভিডিও দেখুন 02:28

জলবায়ু পরিবর্তনের বিপদ

ক্রমেই বিশ্বের আরো বেশি এলাকা শুষ্ক ও অনুর্বর হয়ে যাচ্ছে৷ বৈশ্বিক উষ্ণায়নের ফলে অসংখ্য মানুষের জীবিকা ও জীবন বিপন্ন হচ্ছে – বিশেষ করে বিশ্বের দরিদ্রতর অংশে৷ ছেষট্টি কোটি মানুষের বিশুদ্ধ পানীয় জল পাবার কোনো উপায় নেই৷ অথচ পানের উপযোগী পানীয় জলের পরিমাণও কমে আসছে৷ প্রায় ৮০ কোটি মানুষ পর্যাপ্ত পুষ্টি পাচ্ছেন না৷

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ক্রমেই আরো বেশি এলাকা মরুভূমিতে পরিণত হচ্ছে৷ উর্বর জমি লবণে ভরে যাচ্ছে৷ অথবা মাটি এতই শুকনো, যে সে মাটিতে ফসল বোনা প্রায় অসম্ভব৷

আফ্রিকা ও পূর্ব এশিয়ায় আগামী ১৫ বছরে দশ কোটি মানুষ চরম দারিদ্র্যের কবলে পড়বেন, যদি না তাদের শীঘ্র সাহায্য করা হয় – বলছে বিশ্বব্যাংক৷ ক্ষুধা-তৃষ্ণার তাড়নায় বহু মানুষ এই সব এলাকা বা দেশ ছেড়ে পালানোর চেষ্টা করবেন৷ জমি, পানি, খাদ্য নিয়ে সংঘাত আরো বাড়বে, কেননা জমি আরো কম ফসল দেবে৷

আবহাওয়ার দুর্যোগ আরো ঘন ঘন আসবে৷ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সাগরের পানির উচ্চতা বাড়বে, ঘূর্ণিঝড় আর প্লাবনে দ্বীপ ও উপকূল বিপদগ্রস্ত হবে৷ ব্যাপক এলাকা পানির নীচে ডুবে যেতে পারে৷ শহর ও শিল্পকেন্দ্রগুলিও রেহাই পাবে না৷ এ সবের ফলে বিশ্ব অর্থনীতি আরো দুর্বল হয়ে পড়বে৷ জলবায়ু পরিবর্তন পৃথিবীর সব মানুষের বিপদ ডেকে আনছে৷ বিশেষ করে সংঘাতপ্রবণ এলাকা ও রাজনৈতিক স্থিতিবিহীন দেশগুলির পক্ষে যা আরো বিপজ্জনক হবে৷ যে সব দেশের অর্থনীতি আকারে ছোট কিংবা দুর্বল, তারাও সমস্যায় পড়তে পারে৷

এই জলবায়ু পরিবর্তন রোখার জন্য প্যারিস-চুক্তির মতো বোঝাপড়া প্রয়োজন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও

সংশ্লিষ্ট বিষয়