1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাড়ছে ‘দুর্ভিক্ষ বিবাহ’

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব পড়ছে নারীদের ওপর৷ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে নারীদের ওপর অতিরিক্ত গৃহস্থালি ও সেবা-যত্নের বাড়তি চাপ থাকায় পুরুষদের তুলনায় নারীদের মৃত্যুর হার বেড়ে যাচ্ছে৷

default

জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে আফ্রিকান-আমেরিকান নারীরাই সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত

১৯৯১ সালে বাংলাদেশে বয়ে যাওয়া ঘূর্ণিঝড়ে চোদ্দ লাখ মানুষ মারা যায় এবং এর প্রায় ৯০ শতাংশই ছিল নারী৷ ২০০৪ সালে এশিয়ায় সুনামিতে নিহতের ৭০ থেকে ৮০ শতাংশই ছিল নারী৷

নিউ ইর্য়ক ভিত্তিক নারী পরিবেশ এবং উন্নয়ন সংস্থা (ডাব্লিউইডিও) জানায়, ২০০৫ সালের হারিকেন ক্যাটরিনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর দরিদ্র আফ্রিকান-আমেরিকান নারীরাই সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ ২০০৭ সালে জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচির হিউম্যান ডেভলপম্যান্ট রির্পোটে বলা হয়, জলবায়ুর পরিবর্তনের ফলে ক্ষতিগ্রস্তদের ৭০ শতাংশই দরিদ্র মানুষ৷

লন্ডন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা বিভাগে লিঙ্গ, শিক্ষা এবং বিশ্ব দারিদ্র্যদশা নিয়ে গবেষণারত এ্যানি নর্থ বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে কৃষি উৎপাদন কমে যাচ্ছে৷ কারণ বিশ্বে ৭০ শতাংশ নারী কৃষিকাজের সাথে জড়িত৷ আর পরিবেশের এই পরিবর্তনের ফলে তাদের বেশি সময় ব্যয় করতে হচ্ছে গৃহস্থালি কাজে এবং বন্যার ফলে পানিবাহি রোগ বৃদ্ধি পাওয়ায় পরিবারের সদস্যদের সেবায়৷

UN Klimaverhandlungen in Accra

দুর্ভিক্ষ বিবাহের ফলে মেয়েরা আক্রান্ত হচ্ছে যৌনব্যাধি ও সন্তান উৎপাদন সংক্রান্ত বিভিন্ন জটিলতায়

ডাব্লিউইডিও এর নির্বাহী পরিচালক জুন জেটলিন বলেন, পরিবেশ বিপর্যয়ের শিকার ১৪১ টি দেশে দেখা গেছে সেখানে নারীদের মৃত্যুর হার বেশি আর এর সাথে সরাসরি যোগ রয়েছে নারীর অর্থনৈতিক এবং সামাজিক অধিকারের৷

কেনিয়ায় লিঙ্গ, শিক্ষা এবং বিশ্ব দারিদ্র্য কমাতে নেয়া প্রকল্পে বলা হয়, দেশটির দরিদ্রদশা স্কুলে মেয়েদের উপস্থিতি কমে যাবার অন্যতম কারণ৷ কেনিয়ার প্রতিবেশি দেশ উগান্ডায় খাদ্যাভাবের কারণে মেয়েদের কম বয়সে বিয়ে দিয়ে দেয়া হচ্ছে৷ কারণ দেশটির প্রথা অনুযায়ী বিয়ের সময় মেয়ের বদলে অর্থ উপহার দেয়া হয়৷ আর, তা ‘দুর্ভিক্ষ বিবাহ' নামে পরিচিত৷ আর এর ফলে স্কুলে মেয়েদের সংখ্যা শুধু কমছে না তারা আক্রান্ত হচ্ছে যৌনব্যাধি ও সন্তান উৎপাদন সংক্রান্ত বিভিন্ন জটিলতায়৷

ডাব্লিউইডিও এর তথ্যানুযায়ী, কোপেনহেগেনে অনুষ্ঠিত জলবায়ু সম্মেলনে বিভিন্ন দেশের নিবন্ধিত প্রতিনিধিদের ৩০ শতাংশই ছিল নারী৷ ফিনল্যান্ডের সাংস্কৃতিমন্ত্রী স্টিফেন ওয়ারিন বলেন, জলবায়ুর এই ব্যাপক পরিবর্তনের ফলে পুরুষদের থেকে নারীরাই ক্ষতিগ্রস্ত বেশি হচ্ছে৷

এ্যানি নর্থ বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় নীতি ও পরিকল্পনায় নারীদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি করতে হবে৷ তিনি আরও বলেন, আগামী মে মাসে সেনেগালের ডাকারে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সম্মেলনে যে বিষয়টি আলোচনায় প্রাধান্য পাবে তা হচ্ছে নারী ক্ষমতায়নের কারণগুলো আর তা হচ্ছে - শিক্ষা ও সমযোগ্যতা৷

প্রতিবেদক : আসফারা হক

সম্পাদনা : সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়