1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

জমি আন্দোলনকে কেন্দ্র করে হাওয়া গরম উত্তরপ্রদেশে

কম দামে জমি অধিগ্রহণের প্রতিবাদে রাজনৈতিক লড়াই৷ মায়াবতী সরকারের বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশের ভাট্টা ও পারসোল গ্রামের গরিব কৃষকদের ওপর কথিত পুলিশি অত্যাচারের ঘটনায় রাজনৈতিক দলগুলি কৃষকদের সমর্থনে আন্দোলনে নেমে পড়েছে৷

default

কৃষকদের আন্দোলন

যমুনা এক্সপ্রেস হাইওয়ে তৈরির জন্য কম দামে জোর করে গরিব কৃষকদের জমি অধিগ্রহণের প্রতিবাদে উত্তরপ্রদেশের মায়াবতি সরকারের বিরুদ্ধে গত কয়েক মাস ধরেই দিল্লি সংলগ্ন গৌতমবুদ্ধ নগরের ভাট্টা ও পারসোল গ্রামের কৃষকরা আন্দোলন করছে৷ সম্প্রতি ঐ এলাকার কৃষক-পুলিশ সংঘর্ষের পর থেকে কৃষকদের আন্দোলনকে জোরদার করতে মাঠে নেমে পড়েছে সব রাজনৈতিক দল৷ কংগ্রেসের হয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন দলের সাধারণ সম্পাদক রাহুল গান্ধী৷ সব দলের একই লক্ষ্য, উত্তপ্রদেশের আসন্ন বিধানসভা ভোটের আগে দলের জনভিত্তি বাড়ানো৷ বিশ্লেষকদের মতে, সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামে ঠিক যে ধরণের আন্দোলনকে হাতিয়ার করে মমতা বন্দোপাধ্যায় বাম দুর্গের পতন ঘটিয়েছেন, উত্তরপ্রদেশে জমি অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে আন্দোলনের গতিমুখ যেন সেইদিকেই৷

Rahul Gandhi NO FLASH

কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে গিয়ে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন রাহুল গান্ধী

জমি আন্দোলন এখন ছড়িয়ে পড়েছে ঝাঁসি, মিরাঠ, এলাহাবাদ ও সীতাপুর জেলায়৷ পুলিশ আটক করেছে কংগ্রেস, বিজেপি, লোকজনশক্তি পার্টির শীর্ষ নেতাদের৷ ছাড়া পাননি রাহুল গান্ধীও৷ তাঁকে গ্রেপ্তার করে ছেড়ে দেয়া হয়৷ কংগ্রেস পার্টির তরফে বলা হয়, কৃষকদের ওপর পুলিশি বর্বরতা চালিয়ে এবং রাহুল গান্ধীকে গ্রেপ্তার করে মায়াবতী সরকার তার নিজের কবর খুঁড়ছে৷ কংগ্রেস পার্টির দাবি, গরিব কৃষকদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন, গ্রেপ্তার করা কৃষকদের মুক্তি, তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার ইত্যাদি৷ ভবিষ্যতে দরিদ্র কৃষকের ইচ্ছার বিরুদ্ধে কৃষি জমি নেয়া চলবেনা৷

মায়াবতীর বিএসপি সরকার পুরো ব্যাপারটাকে নোংরা রাজনীতি ও মিথ্যা প্রচার অভিহিত করে বলেছে, ক্ষতিপূরণের সঙ্গে এর কোন যোগ নেই৷ বিরোধী দলগুলি রাজ্যে রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টি করতে চাইছে৷

এদিকে কৃষকদের ওপর পুলিশি বর্বরতার অভিযোগে জড়িয়ে পড়েছে মায়াবতি সরকার৷ উত্তরপ্রদেশ মানবাধিকার কমিশন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিবও পুলিশের মহাঅধিকর্তাকে ঘটনার বিস্তারিত তথ্য পাঠানোর নোটিশ পাঠিয়েছে৷

প্রতিবেদন: অনিল চট্টোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক