1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

জন লেননের জন্মদিন আজ

বিশ্বের সঙ্গীত জগতের সর্বকালের সেরা পাঁচজনের একজন তিনি৷ ঘাতকের হাতে জীবন দিতে না হলে আজ তাঁর বয়স হত ৭০৷ তিনি ব্রিটেনের লিভারপুল থেকে উঠে আসা সঙ্গীত তারকা জন লেনন৷ আজ তাঁর জন্মদিন৷

default

জন লেনন

কেবল একজন গায়ক হিসেবে নয়, সঙ্গীত লেখক হিসেবেও গোটা বিশ্ববাসীর মন কেড়ে নিয়েছিলেন ব্রিটিশ সঙ্গীত তারকা জন লেনন৷ ষাট ও সত্তর দশকে সাড়া ফেলে দেওয়া বিটলস ব্যান্ডের অন্যতম কারিগর ছিলেন এই সুদর্শন তারকা৷ ১৯৪০ সালের ৯ অক্টোবর লিভারপুল শহরে জন্ম তাঁর৷ ছোটবেলা থেকেই তিনি ছিলেন ভীষণ একরোখা এবং ডানপিটে৷ মা জুলিয়ার কিছুটা প্রশ্রয় পেলেও বাবা আলফ্রেডের ছিল কড়া শাসন৷ তাই নিজ পরিবারের কাছ থেকে দূরে সরে গিয়ে তিনি খালা মিমির কাছেই বড় হয়েছেন৷ লেননের জীবনের প্রথম গিটারটি এসেছিল মা জুলিয়ার কাছ থেকে৷ কিন্তু সেই মা তাঁকে ছেড়ে চলে যান এক নির্মম দুর্ঘটনার শিকার হয়ে৷ তখন জন লেননের বয়স মাত্র ১৭৷

মাত্র ১৬ বছর বয়সেই প্রথম ব্যান্ড গড়ে তোলেন লেনন, নাম ছিল দ্য কোয়্যারিম্যান৷ চার বছর পর তিনি গড়ে তোলেন বিখ্যাত ব্যান্ড বিটলস৷ এই ব্যান্ডের অন্যতম সহচর পল ম্যাককার্টনি ও তাঁকে ধরা হয় বিশ্বের অন্যতম সফল সঙ্গীত রচয়িতা হিসেবে৷ দুর্দান্ত স্টেজ পারফরমেন্স, ব্যতিক্রমী ফ্যাশন ও গানের কারণে গোটা বিশ্বেই দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে ওঠে বিটলস৷ আর এই ব্যান্ডের চার তারকার অন্যতম আকর্ষণ ছিলেন জন লেনন৷ বিশ্বজোড়া তারকা খ্যাতি লাভ করলেও লিভারপুলের সাধারণ মানুষের কথা ভুলে যাননি তিনি কখনও৷ তাই সবকিছুর পরেও তাদের গানে ও সুরে ছিল খেটে খাওয়া মানুষের কথা ও স্মৃতি৷

৭০ দশকের গোড়াতে বিটলস ব্যান্ড ভেঙে যায়৷ এরপর নিজের আলাদা ক্যারিয়ার শুরু করেন জন লেনন৷ মাঝে খানিকটা বিরতিও ছিল৷ ১৯৮০ সালে ডাবল ফ্যান্টাসি অ্যালবাম দিয়ে আবারও ফিরে আসেন গানের জগতে৷ কিন্তু সেই বছরের ৮ ডিসেম্বর ঘাতকের বুলেট কেড়ে নেয় সর্বকালের অন্যতম সেরা গায়ক জন লেননের প্রাণ৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: জাহিদুল হক