1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

ছয়টি উৎসবে আমন্ত্রিত ‘‘শুনতে কি পাও!''

বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব নিয়ে নির্মিত ছবি ‘‘শুনতে কি পাও!'' কার্যত গোটা বিশ্বে সাড়া জাগিয়েছে৷ সম্প্রতি প্যারিসের একটি ডুকুমেন্টারি চলচ্চিত্র উৎসবে পুরস্কার জেতা এই ছবি এবার একসাথে ছয়টি উত্‍সবে আমন্ত্রণ পেয়েছে৷

‘‘শুনতে কি পাও!'' ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছিল জার্মানির লাইপসিশ শহরে, গত বছর৷ এরপর ছবিটি ইউরোপের আরো কয়েকটি উৎসবে প্রদর্শন করা হয়৷ এবার প্যারিসের একটি উৎসবে শ্রেষ্ঠ বাস্তবাদী ছবি হিসেবে পুরস্কার জিতেছে সুন্দরবনের কোলে অবস্থিত এক ছোট্ট গ্রামের গল্প নিয়ে তৈরি এই ছবি৷

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ছবির আরো সাফল্যের কথা জানালেন পরিচালক কামার আহমাদ সাইমন৷ আগামী ১০ থেকে ১৭ অক্টোবর অবধি অনুষ্ঠিতব্য এশিয়ার প্রাচীনতম প্রামাণ্য উত্‍সব জাপানের ইয়ামাগাতার প্রতিযোগিতা ‘নিউ এশিয়ান কারেন্টে'-এর জন্য নির্বাচিত হয়েছে ‘‘শুনতে কি পাও!''৷

Deutschland DOK-Leipzig Bangladesch Kamar Ahmad Simon Sara Afreen

ছবির পরিচালক কামার আহমাদ সাইমন ও প্রযোজক সারা আফরীন

এই উৎসবের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, ‘‘উদীয়মান এশীয় নির্মাতাদের মর্যাদাপূর্ণ এই প্রতিযোগিতায় এ বছর ৬৩টিরও বেশি দেশের ৬০৮টি ছবির থেকে বাছাইকৃত মাত্র ১৯টি ছবি এবং তার নির্মাতাদের এ বছর আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে, যাঁদের ছবি আগে কখনো এখানে দেখানো হয়নি৷''

শুধু জাপানের উৎসব নয় সিডনিতে অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক প্রামাণ্যচিত্র উত্‍সব ‘এন্টেনার', যুক্তরাজ্যের অন্যতম নাগরিক চলচ্চিত্র উত্‍সব ‘টেক ওয়ান অ্যাকশন', তুরস্কের ২০তম ‘গোল্ডেন বোল' চলচ্চিত্র উত্‍সব, কসোভোর ‘প্রি-ফিল্ম-ফেস্ট' এবং উপমহাদেশের অন্যতম প্রামাণ্য উত্‍সব ‘ফিল্ম সাউথ এশিয়া'-র মূল আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় আমন্ত্রিত হয়েছে ছবিটি৷

‘‘শুনতে কি পাও!''-এর পরিচালক কামার আহমাদ সাইমন বলেছেন, ‘‘সত্যিকার অর্থে কোনো নির্মাতাই স্বীকৃতির আশায় ছবি বানান না, কিন্তু প্রতিটি প্রাপ্তিই নতুন কাজে উত্‍সাহ দেয়৷ এ নিয়ে ১৫টি প্রথম সারির আন্তর্জাতিক উত্‍সবে আমন্ত্রণ পেল ছবিটি৷''

উল্লেখ্য, ‘‘শুনতে কি পাও!'' ছবির দৃশ্যায়ন এক কথায় অসাধারণ৷ সুতরখালি গ্রামের বিভিন্ন সময়ের অবস্থা চমৎকারভাবে ক্যামেরা বন্দি করেছেন পরিচালক৷ এই ছবির মাধ্যমে গ্রামবাংলার শাশ্বত রূপ আরো একবার দেখছে গোটা বিশ্ব৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়