1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

ছবিঘরগুলো প্রশংসার দাবিদার

‘‘শীতের আগমনি সবজি, ইউরোপের দর্শনীয় স্থান, মৎস্যকন্যা, ড্রাগন, বাংলাদেশের ক্রিকেটর সাফল্য, খুব চমৎকারভাবে আপনাদের লেখনীতে ফুটে উঠেছে৷'' এই মন্তব্য এমএ বারিকের৷

ই-মেলে তিনি আরো লিখেছেন, ‘‘গতকাল ডয়চে ভেলের কয়েকটি প্রতিবেদন পড়ে আমার ভীষণ ভীষণ ভালো লেগেছে৷ এসব প্রতিবেদন সত্যিই অসাধারণ হয়েছে এভাবেই আগামীতেই সমসাময়িক বিষয়ে নতুন নতুন অনেক প্রতিবেদন চাই৷ যেগুলো পড়ে আমাদের হৃদয় ও মন জুড়াবে৷''

জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহতা নিয়ে হিমবাহের কান্না শিরোনামে ছবিঘরটিও বারিকের খুব ভালো লেগেছে জানিয়েছেন৷ এ সম্পর্কে তাঁর মন্তব্য ‘‘এ ধরনের প্রতিবেদন অত্যন্ত সময়োপযোগী এবং প্রশংসার দাবিদার৷ গোটা বিশ্বের খবরাখবর মুহূর্তের মধ্যে জানাতে ডয়চে ভেলের ভূমিকা অপরিসীম৷

শুধু তাই নয় এ সব প্রতিবেদনের ছবিঘর আমাদের মুগ্ধ করে, এর ফলে আমরা সহজেই বুঝতে পারি৷ ‘ম্যান ইজ মর্টাল কিন্তু কেউ কেউ মরেও আমাদের মাঝে বেঁচে আছেন এবং থাকবেন' এমনই একজন ব্যক্তি হলেন ফিলিস্তিনের ইয়াসির আরাফাত৷ তার দশম মৃত্যুবার্ষিকীতে ডয়চে ভেলে শ্রদ্ধার সাথে তাঁকে স্মরণ করার জন্য ডিডাব্লিউকে ধন্যবাদ জানাই৷ আর এই মহান নেতার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি৷'' এমএ বারিক, ভাটরা, সিহালী, শিবগঞ্জ, বগুড়া থেকে৷

এবারও নিয়মিত ই-মেল প্রেরক সুভাষ চক্রবর্তীর মন্তব্য৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘ছবিঘরের মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে পরিবেশনা যদিও প্রশংসনীয়, তবুও বিস্তারিত প্রতিবেদনের মধ্য দিয়ে গভীরভাবে আলোকপাত আরও যথাযথ ও অর্থবহ হয়ে উঠবে৷''

তিনি আরো জানিয়েছেন, ‘‘প্রাকৃতিকভাবে এবং মানুষের অবহেলার কারণে বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তন আমরা দেখতে পাচ্ছি৷ বিশ্বব্যাপী বন্যপ্রাণী, পশু, গাছপালার বাসস্থান ও আচরণ যে বৈশ্বিক উষ্ণায়ন ও জলবায়ু পরিবর্তনের দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হচ্ছে তার অনেক অকাট্য প্রমাণ ইতিমধ্যে আমরা পেয়েছি৷

যদি না গ্রিনহাউস গ্যাসের নির্গমন অধিক পরিমাণে হ্রাস করা হয়, তাহলে অনেক পরিযায়ী ও অপারিযায়ী পশুপাখি, গাছপালার প্রজাতি অদুর ভবিষ্যতে বিলুপ্ত হয়ে যাবার আশংকা আছে৷ বিভিন্ন প্রজাতির উপর উষ্ণায়নের প্রভাব এতটাই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে যে তাদের প্রতিবিধি ও আচরণকে বৈশ্বিক উষ্ণায়নের সূচক হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে৷ মানুষের অবহেলায় তারা কি পৃথিবীর জলবায়ু পরিবর্তনের নীরব সাক্ষী হয়েই থাকবে? এই প্রশ্ন রেখেই সুভাষ চক্রবর্তী তাঁর ই-মেলটি শেষ করেছেন৷

– দুজনকেই আন্তরিক ধন্যবাদ৷ এই দুইজন পাঠকের পাঠানো মতামত ছাড়া পাঠক ভাবনায় দেবার মতো আর কোন ই-মেল আমরা আজও পাইনি৷ তাই নিয়মিত পাঠকদের পাঠানো মতামতই আজও এখানে তুলে ধরা হলো৷ মাঝে মাঝে অন্য বন্ধুরা মতামত জানালে কিছুটা পরিবর্তন আসবে বলেই আমরা মনে করি? প্রিয় বন্ধুরা, আপনারা কী বলেন? সবাই ভালো থাকুন – এই কামনায়, আমরা সকলে৷

সংকলন: নুরুননাহার সাত্তার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

নির্বাচিত প্রতিবেদন