1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

চোট না পেলে সাফল্যের আশা পাকিস্তান টিমের

এবারের বিশ্বকাপ ক্রিকেট পাকিস্তান টিমের কাছে অগ্নি পরীক্ষা৷ ১৯৯২ সালের চ্যাম্পিয়ন যদি এবারও শিরোপা ছিনিয়ে নিতে পারে, তা হবে এশিয়ার কোনো টিমের জন্য একটা রেকর্ড৷

default

তবে সাফল্যের পথে বাধা-বিপত্তির অভাব নেই৷ কারণ একের পর এক সংকটের ফলে আসল খেলায় মন দিতে পারছে না পাকিস্তানের জাতীয় দল৷ কেনিয়াকে হারানোর পর শনিবার কলম্বোয় শ্রীলঙ্কাকেও ১১ রানে হারিয়ে অবশ্য দল কিছুটা চাঙা হয়েছে৷ ভালো খেলা দেখানো সত্ত্বেও দলের ম্যানেজার ইন্তিখাব আলমের চিন্তা খেলোয়াড়দের শারীরিক অবস্থা নিয়ে৷ তাদের কেউ বড় রকমের চোট পেলেই ধারাবাহিক সাফল্যে বিঘ্ন ঘটতে পারে৷ ক্যানাডা, নিউজিল্যান্ড, জিম্বাবওয়ে ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে তাই দলকে ‘অক্ষত' রাখার দিকেই মনযোগ দিচ্ছেন আলম৷

১৯৯২ সালের অভাবনীয় সাফল্যের পর পাকিস্তান অন্যান্য বিশ্বকাপে তেমন চমক দেখাতে পারে নি৷ ১৯৯৯ সালে অবশ্য ফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছতে পেরেছিল এই দল৷ গত বিশ্বকাপে অবশ্য প্রথম রাউন্ডেই আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে হারের গ্লানি আজও মুছে যায় নি৷ সেইসঙ্গে জামাইকার হোটেলের ঘরে কোচ বব উলমারের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনাও দলকে তাড়া করে এসেছে৷ দুর্নীতির অভিযোগে সম্প্রতি ৩ খেলোয়াড়কে হারাতে হয়েছে পাকিস্তানকে৷ নিরাপত্তার কারণে এবারের বিশ্বকাপের অন্যতম আয়োজক দেশের মর্যাদাও হাতছাড়া হয়ে গেছে৷ বলাই বাহুল্য, দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ জয় করতে পারলে সেই সব দুঃখ দূর হয়ে যাবে৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়