1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পুনরএকত্রিত জার্মানি

চেক পয়েন্ট চার্লির স্মৃতি বিজড়িত লেখনী

জার্মানির রাজধানী বার্লিন হচ্ছে সংস্কৃতি চর্চার মূল কেন্দ্র৷ সবসময়ই আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রদর্শনীতে গমগম করে বার্লিন৷ কখনো কনসার্ট, কখনো চলচ্চিত্র পুরস্কার৷ দূর-দূরান্ত থেকে মানুষ আসে এসব প্রদর্শনীতে, কনসার্টে৷

default

রোমানিয়ার লেখিকা কারমেন ফ্রান্সেচকা বানসিউ৷ ১৯৯০ সালে প্রথমবারের মত তিনি বার্লিনে আসেন৷ তখন দুই জার্মানি একত্রিত হচ্ছে৷ চেকপয়েন্ট চার্লির সেই জায়গাটি তাঁর জন্য একারণেই খুব তাৎপর্যপূর্ণ৷ তিনি নিজেই বললেন, ‘‘এখানে বার্লিন প্রাচীর ছিল৷ এখন তা আর নেই৷ আমার কাছে সবসময় মনে হয় যে, এই জায়গাটি থেকেই সব ধরণের মুক্ত চেতনার জন্ম হয়েছিল৷ সেই শক্তি, সেই ইচ্ছা – সবকিছুর সূত্রপাত ঘটেছিল এই চেকপয়েন্ট চার্লিতে৷''

Flash-Galerie Checkpoint Charlie

রোমানিয়ার লেখিকা কারমেন ফ্রান্সেচকা বানসিউ

লেখিকা কারমেন বানসিউ একটি বই লিখেছেন৷ ৩৫ বছর আগে তিনি বার্লিনে প্রথম এসেছিলেন৷ সেই পুরনো দিনের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ঘটনাগুলো তিনি তুলে ধরেছেন তাঁর বইতে৷ যে দোকানগুলিতে তিনি নিয়মিত কেনা-কাটা করতেন৷ যেখানে বসে সন্ধ্যার কফি পান করতেন৷ সবই উঠে এসেছে তাঁর বই'এর পাতায়৷

তিনি জানান, ‘‘বার্লিনের সঙ্গে তেমন কোন যোগাযোগ আমার ছিল না৷ বার্লিনের প্রতি আমার ভালোবাসা অনেক পুরনো৷ তবে সেই বার্লিন আজ আর নেই৷ চেকপয়েন্ট চার্লি এখন হচ্ছে একটি মিলনস্থল৷ আবার একসময়, এখান থেকে দু'দিকে চলে গিয়েছিল পথ৷ সেখানে এখন যা হচ্ছে, তা সবার জন্যই নতুন এক অভিজ্ঞতা৷''

তাঁর বইয়ে কারমেন বানসিউ স্পষ্টভাবেই বার্লিনে প্রতি তাঁর অনুরাগ, ভালবাসার কথা উল্লেখ করেছেন৷ বইয়ের নাম ‘বার্লিন হচ্ছে আমার প্যারিস'৷ রোমানিয়ার লেখিকা হলেও বইটি তিনি লিখেছেন জার্মান ভাষায়৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন