1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

চীন ইরানের বিষয়ে আরো ‘নমনীয়তার’ ডাক দিয়েছে

মঙ্গলবার চীন ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সংক্রান্ত বিরোধে উত্তরোত্তর আলাপ-আলোচনার ডাক দেয় এবং সব পক্ষের প্রতি ‘‘নমনীয়তা প্রদর্শনের'' আহ্বান জানায়৷ অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েলের মনোভাব ক্রমেই আরো কঠিন হচ্ছে৷

default

ইরানের প্রশ্নে চীনের অবস্থান যথেষ্ট নরম (ছবিতে ইরানের প্রেসিডেন্ট আহমাদানিজাদ ও চীনের প্রেসিডেন্ট হু জিনতাও)

চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিন গাং সাংবাদিকদের বলেন যে, সংশ্লিষ্ট পক্ষদের কূটনৈতিক প্রচেষ্টা বাড়ানো উচিৎ৷ অপরদিকে তিনি পুনরায় কূটনৈতিক প্রক্রিয়ায় ইরানের পরমাণু ইস্যুটি সমাধানের কথা বলেন৷ কিন যোগ করেন যে, চীন আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা আইএইএ'র সর্বাধুনিক রিপোর্টটি সম্পর্কে ‘‘অবহিত'', এবং সংশ্লিষ্ট পক্ষরা আইএইএ'র সঙ্গে সহযোগিতা চালিয়ে যাবে বলে বেইজিং আশা করে৷ চীনের এই প্রতিক্রিয়ার পটভূমি হিসেবে বলা যায় যে, বেইজিং ইরানের ঘনিষ্ঠ মিত্র এবং খনিজ তেলের ক্ষেত্রেও ইরানে চীনের ব্যাপক স্বার্থ রয়েছে৷ এছাড়া চীন গোড়া থেকেই দৃঢ়ভাবে ইরানের বিরুদ্ধে আরো কড়া শাস্তিমূলক ব্যবস্থার বিরোধিতা করে এসেছে৷

ওদিকে ইরান সোমবার ঘোষণা করে যে, আগামী মাস থেকে আরো দু'টি নতুন ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধিকরণ স্থাপনা তৈরির কাজ শুরু হতে পারে৷ ইরানের পরমাণু কর্মসূচির প্রধান আলি আকবর সালেহি ইসনা সংবাদ সংস্থাকে এ-খবর জানান৷ সালেহি বলেন যে, নতুন সাইটগুলির সমৃদ্ধিকরণের ক্ষমতা নাটানস স্থাপনাটির মতোই হবে৷ অপরদিকে তাঁর যে মন্তব্যটি পরিবর্তিত পরিস্থিতির কথা স্মরণ করিয়ে দেয়, সেটি হল: এই নতুন স্থাপনাগুলিকে আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য পাহাড়ি এলাকায় লুকিয়ে রাখা হবে৷ এক্ষেত্রে মনে রাখা দরকার যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েল ইরানের পারমাণবিক স্থাপনাগুলির উপর সামরিক আক্রমণের সম্ভাবনা নাকচ করেনি৷ এবং গত রবিবারেই সর্বোচ্চ মার্কিন জেনারেল ডেভিড পেট্রেয়াস ইরানের উপর চাপ বৃদ্ধি করার কথা বলেছেন৷ আর ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিনিয়ামিন নেতানিয়াহু তো সোমবারেই আবার বলেন যে, ইরানের তেল রপ্তানির উপর নতুন বাধানিষেধ আরোপের সময় হল ‘‘এখন'', অর্থাৎ এই মুহূর্তে৷

সরাসরি আক্রমণের চিত্রনাট্যটি নিয়ে আরো অনেকে ভাবছে৷ তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রেচেপ তায়িপ এর্দোয়ান একটি সংবাদপত্র সাক্ষাতকারে বলেছেন যে, ইরানের পারমাণবিক স্থাপনাগুলির উপর ইসরায়েলের প্রতিরোধমূলক আক্রমণ একটি ‘‘অকল্পনীয় ফলশ্রুতির বিপর্যয়''৷ এবং ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলি আহানি হুমকি দিয়েছেন: ইরান যু্দ্ধ শুরু করবে না, কিন্তু আক্রান্ত হলে জোরালো প্রতিক্রিয়া দেখাবে৷

প্রতিবেদক: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী, সম্পাদনা: আবদুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়