1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

চীন

চীনে আইএস-এর রক্তের নদী বইয়ে দেয়ার হুমকি

তথাকথিত জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এ যোগ দেওয়া চীনের সংখ্যালঘু উইগুর সম্প্রদায়ের মানুষ চীনে ফিরে ‘রক্তের নদী বইয়ে দেওয়ার’ হুমকি দিয়েছে বলে জানিয়েছে সাইট ইনটেলিজেন্স৷ সম্প্রতি একটি নতুন ভিডিওতে এই হুমকি দেয়া হয়৷

শিনঝিয়াং রাজ্যে চীনা সৈন্যদের টহল

শিনঝিয়াং রাজ্যে চীনা সৈন্যদের টহল (ফাইল ছবি)

যুক্তরাজ্যভিত্তিক জঙ্গি কার্যক্রম পর্যবেক্ষণকারী গ্রুপ ‘সাইট ইনটেলিজেন্স’ নতুন এই ভিডিওটি এ সপ্তাহে প্রকাশ করে৷ আইএস-এর অনলাইনে প্রকাশ করা ভিডিওতে ইরাকে উইগুর সম্প্রদায়ের মানুষকে প্রশিক্ষণ দেয়ার ছবি ধারণ করা হয়েছে৷

এই ভিডিওটিকে ভয়াবহ হুমকি হিসেবে দেখছে বেইজিং৷ উইগুর হলো চীনের পশ্চিমাঞ্চলে শিনঝিয়াং প্রদেশের মুসলিম সম্প্রদায়, যাদের মধ্যে অনেকে সিরিয়া ও ইরাকে গিয়ে জঙ্গি গোষ্ঠীর সঙ্গে যুদ্ধে যোগ দিয়েছে৷ এছাড়া অবৈধভাবে এদের অনেকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও তুরস্ক সফর করছে বলে ধারণা করা হয়৷ এদের নিয়ে বরাবরই উদ্বেগ প্রকাশ করে চীন৷ চীনাদের মধ্যে ত্রাস ছড়িয়ে দিতে ২০১৫ সালে এক চীনা জিম্মিকে হত্যার দাবি করেছিল ইসলামিক স্টেট৷ গত কয়েক বছরে শিনঝিয়াং-এ কয়েকশ’ মানুষের মৃত্যু হয়েছে উইগুর আর হান চাইনিজদের মধ্যে সংঘর্ষে৷ এই অস্থিরতার জন্য চীনা সরকার ইসলামিক জঙ্গিদের দায়ী করে আসছে

ইসলামিক স্টেটের ‘দ্য ইরাকি আর্ম’ আধা ঘণ্টার এই ভিডিওটি প্রকাশ করেছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে উইগুররা প্রশিক্ষণ নিচ্ছে৷ এছাড়া এর মধ্যে কিছু দৃশ্য শিনঝিয়াং প্রদেশে ধারণ করা, যেখানে চীনা পুলিশদের রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে৷ এদের মধ্যে এক যোদ্ধাকে বলতে শোনা গেছে, ‘‘আমার ভাইয়েরা, আমরা বিশ্বব্যাপী যুদ্ধ করছি! আমি তোমাদের বলছি, এসো এবং এখানে থাকো, শক্তিশালী হও৷ আমরা নিশ্চিতভাবে অ্যামেরিকা, চীন, রাশিয়া এবং বিশ্বের সব প্রান্তে আমাদের পতাকা গেড়ে দেবো৷’’

অন্য এক দৃশ্যে এক উইগুরকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘‘নিপীড়িতদের চোখে যত অশ্রু বয়ে যাবে, ইনশাল্লাহ আমরা তত রক্তের নদী বইয়ে দেবো৷’’ রয়টার্স অবশ্য বলছে, ভিডিওটি সত্যি কিনা তা নিয়ে তারা নিশ্চিত নয়৷

চীনের পরররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র গেঙ শুয়াং বুধবার জানান, তিনি এখনও এই ভিডিওটি সম্পর্কে জানেন না এবং এটি তিনি দেখেননি৷ তবে তিনি বলেন, ‘‘একটা বিষয় পরিষ্কার আর তা হলো, আমরা সন্ত্রাসকে কখনোই সমর্থন করি না এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতায় আমরা সন্ত্রাসবাদ নির্মূলে কঠোর পদক্ষেপ নেবো৷’’

তবে চীনের মানবাধিকার কর্মীদের মতে, শিনঝিয়াংয়ে কোনো জঙ্গি গোষ্ঠী নেই৷ 

এপিবি/এসিবি (এপি, এএফপি, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন