1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

চীনের ভূমিকম্প বিধ্বস্ত প্রদেশে চলছে উদ্ধারকাজ

চীনের কিংহাই প্রদেশের ভূমিকম্পে সেখানে এখন মানবেতর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে৷ সময় যত বাড়ছে ততই বাড়ছে নিহতের সংখ্যা৷ ইতিমধ্যে দুর্গত এলাকায় সেনাবাহিনী পাঠানো হয়েছে৷

default

ইউশু এলাকাতে ধ্বসে পড়া দালানের নীচে চাপা পড়াদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে

ধ্বংসস্তুপের নীচে আটকা মানুষ

বুধবার সকালে কিংহাই প্রদেশে ৬.৯ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানে৷ সেখানকার ধ্বংসাবশেষ এবং দুর্গত মানুষের দুরবস্থা দুই বছর আগে সিচুয়ান প্রদেশের ভূমিকম্পের কথাই মনে করিয়ে দিচ্ছে৷ বার্তা সংস্থা শিনহুয়া এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৬১৭ জন বলে জানিয়েছে৷ এছাড়া আহতের সংখ্যা প্রায় দশ হাজার বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি৷ ভূমিকম্পের পর কিংহাই প্রদেশের শহরগুলোতে ধ্বসে পড়া বাড়িঘরগুলোর নীচে হাজার হাজার মানুষ এখনও চাপা পড়ে আছে৷ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল জিয়েগু এলাকা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে৷ সেখানকার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শহরের ৮৫ শতাংশ বাড়ি ঘর ধ্বংস হয়ে গেছে৷ কিংহাই প্রদেশের রাজধানী থেকে শহরটির দুরত্ব প্রায় ৮০০ কিলোমিটার হওয়ায় সেখানে সাহায্য পৌছতেও সময় লাগছে৷

চলছে উদ্ধার তৎপরতা

কিন্তু এরপরও উদ্ধার তৎপরতা থেমে নেই কিংহাই প্রদেশে৷ বেঁচে থাকা মানুষগুলো নিজেরাই নেমে পড়েছে উদ্ধার তৎপরতায়৷ সেখানকার এক লোক বললেন, ‘আমরা নিজেরাই ভেঙ্গে পড়া বাড়িগুলো থেকে উদ্ধারের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি৷ ওইদিকে উদ্ধাকারী দল একটি স্কুলের হোস্টেলে আটকে পড়া ছাত্রদের উদ্ধারে ব্যস্ত৷ সেখানে প্রায় ২০ জন চাপা পড়ে আছে৷ এছাড়া আরেকটি দল একটি হোটেলের নীচে চাপা পড়া লোকদের বাঁচাতে চেষ্টা করছে৷'

China Erdbeben

প্রচন্ড ভূমিকম্পে বাড়িঘর একেবারে ধ্বংস হয়ে গেছে

কিংহাই প্রদেশের পুলিশ জানিয়েছে, তারা এখন পর্যন্ত ৯০০ এরও বেশি লোককে জীবিত উদ্ধার করতে পেরেছে৷ চীনা সরকার দুর্গত এলাকা পাঁচ হাজার উদ্ধারকারী কর্মি পাঠিয়েছে৷ এদের মধ্যে ৭০০ সেনা সদস্যও পাঠানো হয়েছে বলে জানানো হয়েছে৷ চীনা প্রেসিডেন্ট হু জিনতাও দুর্গত এলাকার সহায়তায় ২৯ মিলিয়ন ডলার দেয়ার কথা ঘোষণা করেছেন৷

আন্তর্জাতিক মহলের সহানুভূতি

এদিকে চীনের এই ঘটনায় সহানুভূতি জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়৷ জাতিসংঘ সহ যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, ফ্রান্স, জাপান চীনকে সহায়তা করতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছে৷ ফরাসি প্রেসিডেন্ট নিকোলা সারকোজি বুধবার চীনা প্রেসিডেন্টকে এক চিঠিতে গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন৷ জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন এক বাণীতে চীনা সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন৷ উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের মে মাসে চীনের সিচুয়ান প্রদেশের ভয়াবহ ভূমিকম্পে প্রায় ৮৭ হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল৷

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: ফাহমিদা সুলতানা

সংশ্লিষ্ট বিষয়