চীনের কিংহাই প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিকম্প, নিহত চার শতাধিক | বিশ্ব | DW | 14.04.2010
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

চীনের কিংহাই প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিকম্প, নিহত চার শতাধিক

তিব্বতের সীমান্ত এলাকার লাগোয়া কিংহাই প্রদেশে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ৮৫ ভাগ ঘরবাড়ি ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়ায় আশ্রয়হীন হয়ে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ৷ এ পর্যন্ত পাওয়া খবরের ভিত্তিতে ৪০০ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা গেছে৷

default

ভয়াবহ এ ভূমিকম্পে ৮৫ ভাগ ঘরবাড়ি ধ্বংসস্তূপে পরিণত

আহত বেশ কয়েক হাজার৷ ধ্বংসস্তূপের মধ্যে বন্দি হয়ে আছেন অনেকেই৷

বুধবার ভোর রাতে এই ভূমিকম্প যখন আঘাত হানে তখন এই পাহাড়ি এলাকার বেশিরভাগ মানুষ ছিলেন ঘুমিয়ে৷ চীনের উত্তর পশ্চিমের এই এলাকা সাঙ্ঘাতিক ভূমিকম্প প্রবণ এলাকা নয়৷ তাই সেখানকার বাড়িঘর নির্মাণে ভূমিকম্পের বিষয়টিকে খুব বেশি আমলে নেয়া হয় না৷

জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেল চীনের ভয়াবহ এই ভুমিকম্পকে দু:খজনক এবং বেদনাদায়ক বলে উল্লেখ করেছেন বলে বার্লিনে সরকারের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন৷ চীনা প্রধানমন্ত্রী ওয়েন জিয়াবাও এর কাছে পাঠানো এক শোকবার্তায় তিনি এই কথা বলছেন৷ ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট হোসে মানুয়েল বারোসো অনুরূপ এক শোকবার্তা দিয়েছেন৷ সেই সঙ্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পক্ষ থেকে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদানের ইচ্ছার কথাও জানিয়েছেন তিনি৷

এই ভূমিকম্পের মাত্রা নিয়ে দুই ধরণের তথ্য পাওয়া যাচ্ছে৷

China Erdbeben Qinghai April 2010 Flash-Galerie

আটকে পড়াদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে

যুক্তরাষ্ট্রের ভূ-কম্পন জরিপ সংস্থা ইউএস জিওলজ্যিক্যাল সার্ভে জানিয়েছে, ভোর সাতটা ৪৯ মিনিটের এই ভুমিকম্পের মাত্রা ছিল ৬ দশমিক ৯৷ কিন্তু চীনের ভূমিকম্প বিষয়ক কর্তৃপক্ষ জানাচ্ছে, এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল সাত দশমিক এক৷

কেবল বাড়ি ঘর নয়, এই ভুমিকম্পের আঘাতে ভেঙে গেছে প্রায় সকল প্রধান সড়ক এবং বিদ্যুৎ ব্যবস্থা৷ স্থানীয় বিমানবন্দরও ভেঙে পড়েছে৷ বহুতল ভবনগুলোতে দেখা দিয়েছে ফাটল৷

ভূমিকম্পের মাত্রা নিয়ে বির্তক থাকলেও ধ্বংসযজ্ঞ নিয়ে কোন বিতর্ক নেই৷ বাড়িঘর ভেঙে যাওয়ায় দুর্গম ঐ এলাকা পুরো ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে৷ কিংহাই প্রদেশের মানুষ একে আশ্রয়হারা হয়েছেন, তারপর তাদের জেঁকে ধরেছে প্রচন্ড শীত৷

বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে ঐ অঞ্চলের সরকারি কর্মকর্তা হোয়াং লিমিন জানিয়েছেন, মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চারশ'তে৷ এছাড়া প্রায় আট হাজার মানুষ গুরুতর আহত বলে প্রকাশ৷

অপর এক কর্মকর্তা জানান, সেনাবাহিনীর সদস্য এবং উদ্ধার কর্মীরা কাজে নেমে গেছে৷ তারা ধ্বংসস্তূপ থেকে মানুষদের বের করার চেষ্টা চালাচ্ছে৷ বেঁচে থাকা মানুষের জন্য জরুরি ত্রাণ এবং খাদ্য পাঠানো হচ্ছে, সরবরাহ করা হচ্ছে তাঁবু৷ সেই সঙ্গে সেখানে আরও তিন হাজার নিরাপত্তা কর্মী পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে সরকার৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়