1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

‘চিবক গার্লস'দের খুঁজে পাওয়া এত কঠিন!

দেখতে দেখতে এক বছর পেরিয়ে গেল৷ কিন্তু নাইজেরিয়ার মতো অপেক্ষাকৃত ছোটো দেশের মধ্যেও তাদের খুঁজে পাওয়া গেল না৷ শুধু ‘চিবক গার্লস' নয়, বোকো হারাম আরও অনেক নারীকে অপহরণ করেছে৷

দেখতে দেখতে এক বছর পেরিয়ে গেল৷ কিন্তু নাইজেরিয়ার মতো অপেক্ষাকৃত ছোটো দেশের মধ্যেও তাদের খুঁজে পাওয়া গেল না৷ শুধু ‘চিবক গার্লস' নয়, বোকো হারাম আরও অনেক নারীকে অপহরণ করেছে৷

‘ব্রিং ব্যাক আওয়ার গার্লস' – এই হ্যাশট্যাগ-কে ভিত্তি করে সোশাল মিডিয়াও উত্তাল৷ জাতিসংঘের নারী বিষয়ক সংগঠন ইউএনউইমেন ‘চিবক গার্লস'-দের উদ্দেশে পড়ে শোনানো নোবেলজয়ী অ্যাকটিভিস্ট মালালা ইউসুফজাইয়ের খোলা চিঠি তুলে ধরেছে৷

একজন মা হিসেবে নিজের মেয়ের কাছ থেকে এক বছর দূরে থাকা কতটা কষ্টকর, তা কল্পনা করাও কঠিন বলে মনে করেন ড. পিক্সি ম্যাকেনা৷ তাঁর প্রশ্ন, চাঁদে মানুষ পাঠানো সম্ভব হলে এখনো নাইজেরিয়ার অপহৃত মেয়েগুলিকে পাওয়া যাচ্ছে না কেন?

তাদের পাওয়া যাচ্ছে না, এটা অবিশ্বাস্য – লিখেছেন দুই সন্তানের মা অ্যানাবেল কেরি৷

আফ্রিকার মেয়ে বলেই আন্তর্জাতিক সমাজ শুধু দুশ্চিন্তার ভান করছে বলে মনে করেন ‘ফেয়ার ট্রেড' ও মানবপাচার বিরোধী অ্যাক্টিভিস্ট মেল আরজো৷ তাঁর অসম্পূর্ণ প্রশ্ন – ইউরোপে এমনটা হলে...

‘চিবক গার্লস'-দের সম্পর্কে আলোচনা হচ্ছে বটে, কিন্তু এই শব্দগুলির পেছনে যারা আছে, সেই ২১৯ জনের ছবি আবার তুলে ধরেছেন জুব্রিল গাওয়াট৷ লিখেছেন, ‘এক বছর পর, কোনোদিন ভোলার নয়'৷

ফ্রান্সের বিচারমন্ত্রী ক্রিস্টিয়ান টোবিরা লিখেছেন, ‘‘তারা রক্তমাংসের মানুষ৷ তাদের মন আছে, মনে আশা আছে৷ নিপীড়নকারীরা – তাদের ভবিষ্যৎ তাদের হাতে ফিরিয়ে দাও৷''

সংকলন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

নির্বাচিত প্রতিবেদন