1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

চলে গেলেন ভল্ফগাং ভাগনার

জার্মানির বায়রয়েট সংগীত উৎসবের দীর্ঘদিনের পরিচালক, গত প্রায় অর্ধশতক ধরে বিশ্ব অপেরা জগতের অন্যতম শীর্ষ ব্যক্তিত্ব ভল্ফগাং ভাগনার রোববার রাতে মারা গেছেন৷ মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯০ বছর৷

default

ভল্ফগাং ভাগনার

গত ৫৭ বছর ধরে তিনি বায়রয়েট উৎসবের পরিচালক ছিলেন৷ বায়রয়েট সঙ্গীত উৎসবের ওয়েবসাইটে এক প্রাথমিক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘তিনি তাঁর সমস্ত জীবন তাঁর বিখ্যাত পিতামহের সঙ্গীত ঐতিহ্যের জন্য উৎসর্গ করে গেছেন৷'' তাঁর মৃত্যুর মধ্য দিয়ে অপেরা জগতের একটি অধ্যায়ের ইতি ঘটল৷

জার্মানির দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য বাভারিয়ার এই বায়রয়েট সঙ্গীত উৎসব ‘রিশার্ড ভাগনার উৎসব' হিসেবেও পরিচিত৷ ১৮৭৬ সাল থেকে চালু রয়েছে এই অপেরা উৎসব৷ তবে, এই উৎসবের আধুনিক ধারার যাত্রা শুরু পঞ্চাশের দশকে৷ ভল্ফগাং ভাগনার এবং তাঁর ভাইয়ের হাতে৷

Wolfgang Wagner tot

রিশার্ড ভাগনার

কিংবদন্তী জার্মান সঙ্গীতজ্ঞ রিশার্ড ভাগনারের দৌহিত্র ভল্ফগাং ভাগনার ১৯১৯ সালের ৩০ আগস্ট জন্মগ্রহণ করেছিলেন৷ রিশার্ড ভাগনারের ছেলে সিগফ্রিড ভাগনারের তৃতীয় সন্তান ভল্ফগাং ভাগনার৷ তাঁর মা উইনিফ্রেড ভাগনার নাৎসিদের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন৷ ১৯৫১ সালে আদালত উইনিফ্রেডকে এই উৎসবের পরিচালকের পদ থেকে সরিয়ে দিলে ভাই ভিলান্ড ভাগনারের সঙ্গে মিলে বায়রয়েট উৎসবের দায়িত্ব নেন তিনি৷

এই দুই ভাইয়ের প্রচেষ্টায় অপেরা উৎসবটি একপ্রকার নবজন্ম লাভ করে৷ ১৯৬৬ সালে বড় ভাইয়ের মৃত্যুর পর উৎসবের দায়িত্ব চলে আসে ভল্ফগাং ভাগনারের একার কাঁধে৷ এ সময়ে মহান সঙ্গীতজ্ঞ রিশার্ড ভাগনারের ঐতিহ্যবাহী ধারার পাশাপাশি নতুন ধারার নিরীক্ষামূলক অপেরা যোগ করেন এবং সমসাময়িক বিখ্যাত অপেরা পরিচালকদের এই উৎসবে আমন্ত্রণ জানান তিনি৷ বায়রয়েট উৎসবে কাজ করতে শুরু করেন ‘ডয়েচে ওপার বার্লিন'-এর গোয়েৎস ফ্রিডরিশ, রয়াল শেক্সপিয়ার কোম্পানির স্যার পিটার হল এবং ‘বার্লিনার এনসেম্বল'-এর হাইনার ম্যুলার এর মতো খ্যাতিমান অপেরা পরিচালকরাও৷ এভাবে বছরের পর বছর ধরে বিশ্ব অপেরার জগতে নিত্যনতুন আকর্ষণ নিয়ে খ্যাতি ধরে রাখে বায়রয়েট উৎসব৷

প্রতিবেদন : মুনীর উদ্দিন আহমেদ

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়