1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

চলচ্চিত্র, টিভিতে ধূমপানের দৃশ্য চিত্রায়নে চীনে বিধিনিষেধ

চলচ্চিত্র এবং টেলিভিশন সিরিজে ধূমপানের দৃশ্য চিত্রায়নের ওপর বিধিনিষেধ আরোপের নির্দেশ দিয়েছে চীন৷ দেশটিতে প্রায় ৩০ কোটি মানুষ ধূমপায়ী৷ কিন্তু তাদেরকে ধূমপান ছাড়ানোতে ব্যর্থ হয়ে এই উদ্যোগ নিয়েছে সরকার৷

default

যে কোনো ধূমপানের দৃশ্য চিত্রায়নের ওপরে চীনের রেডিও, চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনকে কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করতে বলেছে চীনের রাষ্ট্রীয় কর্তৃপক্ষ৷ চলচ্চিত্র এবং টেলিভিশন সিরিজে সিগারেটের কোনো ব্রান্ড প্রদর্শন আগেই নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷ আর এবার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ধূমপানের দৃশ্য যতসম্ভব সংক্ষিপ্ত করার জন্যে৷ স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফ রেডিও, ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন, এসএআরএফটি-র ওয়েবসাইটে শনিবারে ধূমপানের ওপরে বিধিনিষেধ আরোপ সংক্রান্ত নির্দেশটি পোস্ট করা হয়৷

চীনের সরকারি বার্তা সংস্থা সিনহুয়া চালিত এক জরিপে দেখা গেছে, প্রায় শতকরা ৩৩ ভাগ স্কুল শিশু টেলিভিশনে অভিনেতাদের ধূমপান করতে দেখে ধূমপান করার চেষ্টা করেছে৷ বিশ্বের সবচেয়ে বড় টোব্যাকো নির্মাতা, ভোক্তা এবং ধূমপায়ীর বাস চীনে৷ আর তাই চীনে সবচেয়ে বড় হত্যাকারী বা কিলার হিসেবে টোব্যাকোকেই দেখা হয়৷ এককথায় ধূমপায়ীদেরকে অনেক মূল্যও দিতে হয় চিকিৎসা ক্ষেত্রে এবং সামাজিকভাবে৷

গত মাসে চীন এবং বিদেশী চিকিৎসক বিশেষজ্ঞদের ইস্যুকৃত এক যৌথ প্রতিবেদনে হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলা হয়েছে, বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশটিতে ২০৩০ সালের মধ্যে ধূমপানের কারণে মৃত্যহার তিনগুণ বাড়বে৷ প্রতিবেদনটিতে আরো বলা হয়েছে, যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে, ২০৩০ সালের মধ্যে ধূমপান সম্পর্কিত অসুস্থতায় প্রতি বছরে ৩৫ লাখেরও বেশি চীনা প্রাণ হারাবে৷ ২০০৫ সালে এই সংখ্যা ছিল ১২ লাখ৷

পাঁচ বছর আগে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ‘ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন টোব্যাকো কন্ট্রোল'-এর একটি অংশ হিসেবে নিজেকে সংযুক্ত করে চীন৷ তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ইনডোর ধুমপান, রেস্তোঁরা বা অফিস ভবনে ধূমপানের মতো বিষয়গুলো নিষিদ্ধ না করে এফসিটিসি-র নির্দেশনা বাস্তবায়নে পেছনে পড়ে রয়েছে চীন৷

শুধু চীনেই নয়, ধূমপান বর্জনের ব্যাপারে সচেতনতা ল্ক্ষ্য করা যাচ্ছে অনেক দেশেই৷ যেমন নিউ ইয়র্ক শহরের পার্ক, সমুদ্র সৈকতসহ সব ধরনের জনসমাগমস্থলে ধূমপান নিষিদ্ধ করা হচ্ছে৷ চলতি মাসের প্রথমে এই নিষেধাজ্ঞার ওপর বিল পাস হয়েছে নিউ ইয়র্ক সিটি কাউন্সিলে৷ জনসমক্ষে ধূমপানে নিষেধাজ্ঞার পক্ষে কাউন্সিলে ৩৬টি ও বিপক্ষে ১২টি ভোট পড়েছে৷

বিলটিতে স্বাক্ষর করার ঘোষণা দিয়ে নিউ ইয়র্কের মেয়র মাইকেল ব্লুমবার্গ বলেন, স্বাক্ষর করার ৯০ দিন পর থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে৷ বর্তমানে শহরটির রেস্তোরাঁ ও বারগুলোতে ধূমপানের ওপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে৷

প্রতিবেদন: ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: জাহিদুল হক

সংশ্লিষ্ট বিষয়