1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ঘরোয়া ক্রিকেটে ৬ মাস, আইপিএলে দেড় বছর নিষিদ্ধ

বাংলাদেশের অলরাউন্ডার ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে সোমবার ঘরোয়া ক্রিকেটে ছয় মাস এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে দেড় বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বা বিসিবি৷

Cricket Bangladesch Shakib Al Hasan

সাকিব আল হাসান (ফাইল ফটো)

অনাপত্তি-পত্র না নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লিগে খেলতে যাওয়া এবং তার জন্য কৈফিয়ত তলব করলে ক্রিকেট থেকে অবসরের হুমকি দেয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে এই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে৷ সিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান বলেছেন, সাকিবের বিরুদ্ধে আরো পুঞ্জিভূত অভিযোগ রয়েছে৷

এর আগে সর্বশেষ শ্রীলঙ্কা সিরিজ চলার সময় ঘরোয়া ক্রিকেটে তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞার শাস্তি ভোগ করেন সাকিব৷ আর এবার ঘরোয়া এবং আন্তর্জাতিক সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হলেন তিনি৷ ঘরোয়া ক্রিকেটে ছয় মাস এবং ২০১৫ সালের ৩১শে ডিসেম্বর পর্যন্ত বাইরের কোনো লিগে খেলার জন্য এনওসি (অনাপত্তি-পত্র ) পাবেন না সাকিব৷ ফলে আগামী আইপিএল-এও খেলা হবে না তাঁর৷

Shakib Al Hasan mit seiner Frau Shishir

স্ত্রী শিশিরের সঙ্গে সাকিব

বলা বাহুল্য, সাকিবকে ছাড়াই আগামী মাসে ওয়েস্টইন্ডিজ সফরে যাবে বাংলাদেশ৷ এছাড়া নভেম্বরে জিম্বাবোয়ের বিপক্ষে সিরিজেও খেলা হবে না সাকিবের৷ ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে শুরু হতে যাওয়া বিশ্বকাপের আগে দলে ফিরবেন এই অলরাউন্ডার৷ তবে এর মধ্যে আচরণ না শোধরালে ভবিষ্যতে আজীবনের জন্যও নিষিদ্ধ হতে পারেন সাকিব আল হাসান

সোমবার দুপুরে রাজধানী ঢাকায় বিসিবির সভা বসে৷ সেই সভায় সাকিবকে ডাকা হলে, তিনিও হাজির থাকেন৷ বিসিবির সভা শেষে সভাপতি নাজমুল হাসান সাকিবের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার কথা সাংবাদিকদের জানান৷

নাজমুল হাসান জানান, ‘‘সর্বশেষ অনাপত্তি-পত্র না নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যারিবীয় প্রিমিয়ার লিগে খেলতে যাওয়া, টেস্ট ও ওয়ানডে দল থেকে অবসর নিয়ে ফেলার মতো মন্তব্য করার কারণেই সাকিবের ওপর এই কঠিন শাস্তি নয়৷ দীর্ঘদিন ধরে সাকিবকে নিয়ে জমে থাকা অভিযোগের ভিত্তিতেই কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি৷''

তিনি বলেন, ‘‘সাকিব দলের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছিলেন৷ তাঁর এ সব কাণ্ড দলের পারফরম্যান্সের ওপর প্রভাব ফেলেছে৷ তার দেখাদেখি অন্যরাও এমনটা করার সাহস পাচ্ছে৷ সাকিবের মারাত্মক আচরণগত সমস্যা আছে৷ কাউকে যেন সে পরোয়া করে না৷ বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে এমনটা আগে কখনো দেখা যায়নি৷''

নাজমুল হাসান বলেন, ‘‘সম্প্রতি সাকিবের স্ত্রীকে উত্তক্ত করা নিয়ে একটা ঘটনা ঘটেছিল৷ প্রত্যক্ষদর্শী ও নিরাপত্তারক্ষীরা জানিয়েছে, সে একটি ছেলেকে মারধর করেছে৷ অথচ শুনানিতে যখন আমরা তাঁকে ডাকলাম, সে অকপটে বললো, ‘মারিনি'৷ তাকে যখন জিজ্ঞেস করা হলো, তাহলে ড্রেসিং রুম ছেড়ে গেলে কেন? বলল, ‘আমি নিয়ম জানতাম না'৷ বোর্ড মনে করছে, এগুলো তার উদ্ধত আচরণের নমুনা৷ এগুলোকে আর প্রশ্রয় দেয়া যায় না৷''

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘‘ভবিষ্যতে এমনটা হলে আজীবন নিষিদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা আছে সাকিবের৷ শৃঙ্খলা রক্ষায় কোনো ছাড় নেই৷ সাকিব আমাদের দেশের দূতের মতো৷ অনেকে বাংলাদেশকে চেনে কেবল তার জন্যই৷ বাংলাদেশের ক্রিকেট সাকিবের জন্য এটা মাথায় রেখেই দুঃখজনক ও কষ্টকর এ শাস্তির সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে৷''

অন্যদিকে বোর্ডের সিদ্ধান্তের পর বেরিয়ে যাওয়ার সময় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি সাকিব৷

বিজ্ঞাপনে অংশ নিতে পারবেন না

সাকিব আল হাসান এখন থেকে বিসিবির অনুমতি ছাড়া কোনো ধরণের প্রচারণা বা বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনে অংশ নিতে পারবেন না৷ শুধু সাকিব নয়, বিসিবির চুক্তিবদ্ধ সব ক্রিকেটারের জন্যই এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে৷

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘‘এখন থেকে কোনো ধরনের বিজ্ঞাপনচিত্রের শুটিংয়ের আগে পণ্য প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ক্রিকেট বোর্ডকে অবহিত করতে হবে৷ তারপর বোর্ডের সদস্যদের অনুমতি লাগবে৷ সব ক্রিকেটারের ক্ষেত্রেই এটা প্রযোজ্য৷''

দেশের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে এখন সাকিবের বেশ কয়েকটি বিজ্ঞাপনচিত্র চলছে৷ এছাড়া যেসব বিজ্ঞাপন তৈরি হয়েছে, তা প্রচারে কোনো বাধা নেই বলে জানায় বিসিবি৷

উল্লেখ্য, সম্প্রতি সাকিব ঢাকার একটি অভিজাত শপিং মলে প্রসাধন সামগ্রীর শো-রুমও খুলেছেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন