1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

গ্ল্যামারে দীপিকার জিত আর বিদ্যার পুরস্কার

কান-এর লাল কার্পেটে হাঁটার সময় গ্ল্যামারে হার ঐশ্বরিয়ার, তাও আবার দীপিকার কাছে৷ ওদিকে পুরস্কার পাবেন বলিউড সুন্দরী বিদ্যা বালন৷

default

তবুও তিনিই বিশ্বসুন্দরী৷

কান-এ দীপিকার বাজিমাত

ফ্রান্সে যে কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল চলছে, তার গ্ল্যামারে মোড়া লাল কার্পেটে হাঁটতে গিয়ে বলিউডের সেক্স সিম্বল দীপিকা পাড়ুকোনের কাছে হেরেই গেলেন অভিজ্ঞ নায়িকা এবং প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন৷ হেরে গেলেন অন্য কিছুতে নয়, পোষাক নির্বাচনে৷ ফ্যাশন দুনিয়ায় লো-রিয়েল-এর আন্তর্জাতিক মডেল ঐশ্বরিয়া লাল কার্পেটে হাঁটার সময় পড়েছিলেন একটি ওয়াইন লাল রঙের গাউন, মাথার চুল পনিটেল আর সামান্য মেক আপ, সামান্যই গয়নাগাঁটি৷ তুলনায় ২৪ বছরের তুখোড় যুবতী দীপিকা লাল কার্পেটে আসেন একেবারে ভারতীয় চালে৷ দীপিকার পরণে ছিল নামজাদা ডিজাইনার রোহিত বাল-এর ডিজাইনে হলদেটে শাদা রঙের একটি এমব্রয়ডারি করা শাড়ি, তাতে সোনার জরির কাজ, সঙ্গে সামান্য সোনার গয়না৷ ব্যস! এতেই বাজিমাত৷ বিশ্বজুড়ে যাবতীয় গ্ল্যামার ক্যামেরার ফোকাস দেখা গেল দীপিকাকে ঘিরেই৷ ডিজাইনাররাও বলছেন, দীপিকা জানেন, কী ধরণের পোষাক পরলে মনোযোগ আকর্ষণ করা যায়৷

Indien Bollywood Schauspielerin Deepika Padukone

এখন জেল্লায় জ্বলজ্বল করছেন দীপিকা

দীপিকা কান-এ যোগ দিয়েছেন শিভাস রিগাল-এর মডেল হিসেবে৷ এ বছরই প্রথমবার কান-এর লাল কার্পেটে দীপিকার পা পড়ল৷ আর শুরুতেই বাজিমাত, কেল্লা ফতে! পাল্লা দেখা যাচ্ছে এখন দীপিকার দিকেই বেশ ভারি৷ কান-এর হৃদয় জয় করা তো চাট্টিখানি কথা নয়! কান চলচ্চিত্র উত্সব হল গ্ল্যামার জগতের সেরার সেরা৷ সেখানে রসিকজনের প্রশংসা পাওয়া পর প্রাক্তন ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ন প্রকাশ পাড়ুকোনের কন্যার আবার অহংকারটা আকাশে না উঠে যায়!

বিদ্যা পাচ্ছেন স্মিতা পাটিল পুরস্কার

অন্যধারার ছবির প্রয়াত অভিনেত্রী স্মিতা পাটিল স্মারক পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হলেন বলিউডের সুন্দরী অভিনেত্রী বিদ্যা বালন৷ প্রিয়দর্শিনী আকাদেমির চেয়ারম্যান নানিক রুপানি এই সুসংবাদ জানিয়ে বলেছেন, হিন্দি ছবিতে অসামান্য অবদানের জন্যই বিদ্যাকে এই স্মারক পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হয়েছে৷ সনাতন ভারতীয় একটা ‘লুকস' আছে বিদ্যার৷ আবার তার পাশাপাশি আছে পাশ্চাত্ত্যের স্মার্টনেস৷ দুইয়ে মিলে বিদ্যা অসাধারণ, বলছেন রুপানি৷ একটি সমাজসেবী সংস্থা চালায় এই আকাদেমি৷ উদ্দেশ্য, সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং শিক্ষাগত উন্নয়নে ভূমিকা নেওয়া৷ প্রতি দুই বছর অন্তর এই পুরস্কার দেওয়া হয় আকাদেমির পক্ষ থেকে৷ শেষবার ২০০৮ সালে সেরার শিরোপা পেয়েছিলেন প্রীতি জিন্টা৷ এছাড়াও যশ চোপড়া, করিশমা কাপুর, উর্মিলা মার্তোন্ডকর, ঐশ্বরিয়া রাই, মাধুরী দীক্ষিত, করিনা কাপুর প্রমুখ এই পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন বিগত বছরগুলিতে৷ আগামী ১৯ সেপ্টেম্বর মুম্বইয়ের ওবেরয় হোটেলে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে বিদ্যা বালনের হাতে, জানিয়েছেন নানক রুপানি৷

প্রতিবেদন : সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা : রিয়াজুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়