1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গ্রামীণ ব্যাংক থেকে ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে অপসারণের আদেশ

গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ থেকে শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে অপসারণ করা হয়েছে৷ বুধবার অপসারণের এ আদেশ জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক৷

default

ড. মুহাম্মদ ইউনূস

অবশ্য গ্রামীণ ব্যাংকের পক্ষে তাদের মুপাত্র ড. মোহাম্মদ ইউনুসকে উদ্ধৃত করে ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ড. মোহাম্মদ ইউনুস এখনো তার পদে বাহাল আছেন৷ বিষয়টি আইনগত ভাবে দেখা হবে৷

আদেশের একটি কপি গ্রামীণ ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে পাঠান হয়েছে৷ ব্যাংক আইনের ৪৫ ধারার ক্ষমতাবলে বাংলাদেশ ব্যাংক ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে অপসারণের এ সিদ্ধান্ত নিল৷ এর আগে সোমবার ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব ও গ্রামীণ ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের কাছে পাঠানো বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠিতে বলা হয়, গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের থাকা বৈধ নয়৷ গ্রামীণ ব্যাংকের চাকরির বিধিমালা অনুসারে অবসর গ্রহণের বয়স ৬০ বছর৷ ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বয়স ৬০ বছর উত্তীর্ণ হলেও পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুসারে তিনি অনির্দিষ্ট মেয়াদে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদে বহাল আছেন৷

এদিকে গ্রামীণ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক এবং মিডিয়া কোঅর্ডিনেটর জান্নাতই কাওনাইন ডয়চে ভেলেকে জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের আদেশের কপি তারা পেয়েছেন৷ বিষয়টি আইনগত এবং তারা তা আইনগত ভাবেই মোকাবেলা করবেন৷ ড. মুহাম্মদ ইউনূস এখনো গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে বহাল আছেন৷

সাবেক অর্থ সচিব এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. আকবর আলি খান ডয়চে ভেলেকে জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের আদেশ আইন সম্মত হয়নি৷ এটি গ্রামীণ ব্যাংকের জন্য ক্ষতির কারণ হবে৷ তবে এসব বক্তব্যের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের কোন প্রতিক্রিয়া জানা যায়নি৷

১৯৭৬ সাল থেকে চ্ট্টগ্রাম এলাকায় ড. ইউনূস গ্রামীন ক্ষুদ্র ঋণ বিতরণের মধ্য দিয়ে গ্রামীণ ব্যাংকের কাজ শুরু করলেও এটি ব্যাংক হিসেবে আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পায় ১৯৮৩ সালে৷ বর্তমানে সারা দেশে ব্যাংকের ২৫৬৫টি শাখা এবং ৮৩৫৪৭৫৪ জন গ্রাহক বা সদস্য রয়েছেন৷ এর মধ্যে ৯৭ ভাগই মহিলা৷ ব্যাংকের মালিকানা ৯০ ভাগ গ্রামীণ ব্যাংকের সদস্যদের৷ ১০ ভাগ সরকারের৷ শুরু থেকেই ড. মুহাম্মদ ইউনূস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে আছেন৷ ২০০৬ সালে গ্রামীণ ব্যাংক এবং ড. মুহাম্মদ ইউনূস শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা
সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক