1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

গুলশানের সেই ক্যাফে আবাসিক ভবনে রূপ নিচ্ছে

ঢাকার গুলশানে গত জুলাইয়ে সন্ত্রাসী হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত ক্যাফেটিকে আবাসিক ভবনে রূপ দেয়া হচ্ছে৷ গত সপ্তাহে পুলিশের কাছ থেকে চাবি পাওয়ার পর এই ঘোষণা দিয়েছেন ক্যাফের মালিক সাদাত মেহদী৷

দীর্ঘ চারমাস তদন্তের পর গত মঙ্গলবার গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারির চাবি মালিকের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ৷ আন্তর্জাতিক জঙ্গি গোষ্ঠী তথাকথিত ইসলামিক স্টেটের দায় স্বীকার করা সেই হামলায় অন্তত ২২ ব্যক্তি নিহত হন, যাদের অধিকাংশই বিদেশি৷ ঢাকার নিরাপদ এলাকা হিসেব বিবেচিত ডিপ্লোমেটিক জোনে এই হামলা গোটা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছিল৷

সাদাত মেহদী জানিয়েছেন, চাবি ফিরে পেলেও ক্যাফেটিকে তিনি আর চালু করবেন না, বরং পরিবার নিয়ে সেখানে থাকবেন তিনি৷ আর ঢাকার অন্য দুটি এলাকায় একই নামে ক্যাফে চালুর পরিকল্পনা করছেন এই রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ী৷

জুলাইয়ের হামলায় নিহত বিদেশিদের মধ্যে অধিকাংশই ছিলেন জাপান এবং ইটালির নাগরিক৷ মেহদীর পাঁচ বন্ধুও নিহত হয়েছেন সেই হামলায়৷ সন্ত্রাসীরা গুলি করে এবং কুপিয়ে তাদের হত্যা করে৷

বাংলাদেশে তিনবছর ধরেই ব্লগার, অ্যাক্টিভিস্ট এবং বিদেশিদের হামলার চূড়ান্ত পরিণতি ছিল গুলশানে ক্যাফেতে হামলা৷ ‘ইসলামিক স্টেট' দায় স্বীকার করলেও বাংলাদেশ সরকার অবশ্য দাবি করেছে, স্থানীয় একটি জঙ্গিগোষ্ঠী সেই হামলা চালিয়েছে৷ আর গুলশান হামলার সন্দেহভাজন বেশ কয়েকজন জঙ্গি পুলিশের অভিযানে নিহত হয়েছে৷

এআই/এসিবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন