1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গুপ্তচর সন্দেহে নিজেদের লোক মারছে আইএস

সিরিয়া ও ইরাকে তথাকথিত ইসলামিক স্টেট-এর বিরুদ্ধে সংগ্রামে সম্প্রতি একাধিক সাফল্য সত্ত্বেও তাদের শক্তি পুরোপুরি ক্ষয় হয়নি৷ তবে ‘বিশ্বাসঘাতক'-দের শাস্তির ঘটনা তাদের দুর্বলতাও দেখিয়ে দিচ্ছে৷

প্রবল চাপের মুখে সার্বিকভাবে আইএস নিজস্ব শিবিরে ঐক্য বজায় রাখতে পারছে না বলে বিভিন্ন ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে৷ আর্থিক অনটন, পরাজয়সহ বিভিন্ন কারণে যোদ্ধারা পালানোর চেষ্টা করছে৷ গুপ্তচর সন্দেহে তাদের অনেককে হত্যাও করা হচ্ছে৷

আইএস-এর হাত থেকে ফালুজা শহর পুনর্দখল করতে ইরাকের সেনাবাহিনী লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে৷ যেসব নিরীহ মানুষ শহর ছেড়ে পালাবার চেষ্টা করছে, তাদের দিকে লক্ষ্য করে গুলি চালাচ্ছে আইএস যোদ্ধারা৷ ইউফ্রেটিস নদীর পেরোতে গিয়ে অসংখ্য মানুষ নিহত হয়েছে৷ নরওয়েজিয়ান রেফিউজি কাউন্সিল এই অভিযোগ জানিয়েছে৷

উল্লেখ্য, গত মে মাস থেকেই সামরিক অভিযান চলছে৷ তবে শহরে প্রায় ৫০ হাজার নিরীহ মানুষ আটকে পড়ায় এবং আইএস-এর প্রবল প্রতিরোধের ফলে সাফল্য আসছে না৷ তবে রবিবার ইরাকি বাহিনী শহরের দক্ষিণ প্রান্ত দখল করতে সক্ষম হয়েছে৷ মোসুল শহর দখলের উদ্যোগে অবশ্য বিলম্ব ঘটছে৷

ফালুজায় এখনো সাফল্য না এলেও সিরিয়ায় মনবিজ শহর আইএস-এর দখল থেকে মুক্ত করতে অগ্রগতির খবর পাওয়া যাচ্ছে৷ কমপক্ষে ১৫০ আইএস যোদ্ধা নিহত হয়েছে বলে মার্কিন-সমর্থিত এক গোষ্ঠীর এক মুখপাত্র দাবি করেছেন৷ তাঁর মতে, অনেক যোদ্ধা সপরিবারে শহর ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে৷ ফলে শহরে তাদের দখলে থাকা বাড়িঘর খালি হয়ে যাচ্ছে৷

সিরিয়ার সরকারি সূত্র অনুযায়ী, সেনাবাহিনী আইএস-নিয়ন্ত্রিত এলাকার রাজধানী বলে পরিচিত রাকা শহর দখলের ক্ষেত্রে অগ্রগতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে৷ শহরের কাছে আরও এলাকা সরকারি বাহিনীর দখলে চলে এসেছে৷ তারা তকবা সামরিক বিমান ঘাঁটির কাছাকাছি এসে পড়েছে বলে জানিয়েছে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস৷ গত বুধবার থেকে রাকা দখল অভিযান শুরুর পর থেকে কমপক্ষে ৭০ জন আইএস যোদ্ধা নিহত হয়েছে বলে তাদের দাবি৷

এদিকে তুরস্কসহ মার্কিন কোয়ালিশন বাহিনীর হামলায় সিরিয়ায় কমপক্ষে ৭ জন আইএস যোদ্ধা নিহত হয়েছে বলে তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা দাবি করছে৷ সীমান্তে এবং আজাজ শহরে এসব হামলার মাধ্যমে তুরস্কের বিরুদ্ধে হামলার প্রস্তুতিও বানচাল করা হয়েছে বলে এই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে৷

এসবি/এসিবি (এএফপি, রয়টার্স, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়