1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ইউরোপীয় ইউনিয়ন

‘গুগল, ফেসবুককে ইউরোপেই কর দিতে হবে'

ইউরোপে ব্যবসা করে কর এড়িয়ে যাবার দিন শেষ হয়ে গেছে, এমন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ৷ ইইউ শীর্ষ নেতারা ডিজিটাল যুগের জন্য ইউরোপকে প্রস্তুত করে তোলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন৷

ইউরোপীয় ইউনিয়নের শীর্ষ নেতারা ডিজিটাল যুগে ইউরোপের ভবিষ্যৎ রূপরেখা স্থির করতে শুক্রবার এস্টোনিয়ার রাজধানী টালিন-এ মিলিত হচ্ছেন৷ প্রযুক্তির দ্রুত উন্নতির মাঝে প্রতিযোগিতার বাজারে ইউরোপের অবস্থান মজবুত করতে তাঁরা বদ্ধপরিকর৷ সরকারি, বেসরকারি ক্ষেত্র থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষও যাতে ডিজিটাল প্রযুক্তির পূর্ণ সদ্ব্যবহার করতে পারে, সেই লক্ষ্যে পদক্ষেপ নেবার তোড়জোড় করছে৷ উল্লেখ্য, এ ক্ষেত্রে এস্টোনিয়া এর মধ্যেই বিপুল সাফল্য অর্জন করেছে৷

শরণার্থীর ঢল, আর্থিক ও অর্থনৈতিক সংকট, পপুলিস্টদের উত্থান, কাঠামোগত দুর্বলতাসহ একাধিক সমস্যায় জর্জরিত ইউরোপীয় ইউনিয়ন৷ তবে একাধিক সংস্কারের মাধ্যমে ব্রেক্সিট-পরবর্তী যুগে ইইউ-কে শক্তিশালী করে তোলার প্রস্তাব দিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ৷ জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা ম্যার্কেলও মাক্রোঁর প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন৷

এসব প্রস্তাব কার্যকর করতে আগামী দুই সপ্তাহ ধরে আলাপ-আলোচনার পর ইউরোপীয় কমিশন কিছু স্পষ্ট লক্ষ্যমাত্রা স্থির করবে, এমনটাই আশা করা হচ্ছে৷

শুক্রবার ইইউ নেতারা ডিজিটাল অর্থনীতি ও সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা করছেন৷ গুগল ও ফেসবুকের মতো বহুজাতিক ডিজিটাল কোম্পানি এতকাল যেভাবে ইউরোপে কর এড়িয়ে ব্যবসা করে চলেছে, সেই ব্যবস্থায় ইতি টানতে চান ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট মাক্রোঁ৷ ইইউর মধ্যে তাদের যে আয় হচ্ছে, তার উপর কর চাপাতে চান তিনি৷ উল্লেখ্য, ইউরোপে গুগল, এয়ারবিএনবিসহ একাধিক কোম্পানির বিরুদ্ধে এর মধ্যেই কর ফাঁকি সংক্রান্ত মামলা চালানো হয়েছে৷

তবে আয়ারল্যান্ডের মতো ছোট দেশগুলি এই প্রস্তাব প্রতিরোধ করছে, কারণ করের নিম্ন হারের মাধ্যমে তারা এতকাল বড় ডিজিটাল কোম্পানিগুলিকে আকর্ষণ করতে পেরেছে৷ বিদায়ী দেশ ব্রিটেনও মনে করে, মূলত মার্কিন ডিজিটাল কোম্পানিগুলির উপর ইউরোপে কর চাপালে মার্কিন প্রশাসন রুষ্ট হয়ে পালটা পদক্ষেপ নিতে পারে৷

এসবি/এসিবি (রয়টার্স, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন