1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গুগল নিয়ে এবার জার্মানিতে নতুন বিতর্ক

চীনের পর এবার জার্মানির সঙ্গেও বিরোধে জড়িয়ে পড়লো গুগল৷ জার্মান সরকার জানিয়েছে গুগল এর স্ট্রিট ভিউ এর ব্যাপারে তারা কড়া পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে৷

default

এভাবে গাড়িতে ক্যামেরা নিয়ে আশেপাশের ছবি তোলা হয় গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের জন্য

মজার বিষয় গুগলের স্ট্রিট ভিউ

এটা হচ্ছে গুগলের একটি ইন্টারনেট পরিষেবা৷ আমাদের অনেকেই গুগল আর্থ এর সঙ্গে পরিচিত যার মাধ্যমে আমরা যে কোন জায়গার অবস্থানচিত্র দেখতে পারি৷ তেমনি গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের মাধ্যমেও যে কোন জায়গার আরও ভালো অবস্থানচিত্র দেখা যায়৷ মনে হবে যেন আপনি সেই জায়গার কোন রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছেন এবং আপনার আশেপাশের সব রাস্তা-ঘাট, বাড়িঘর স্পষ্টভাবে দেখতে পাচ্ছেন৷ ইউরোপের প্রায় সব দেশের শহরগুলোর এই ধরণের চিত্র দেখা যায় ইন্টারনেটে গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের মাধ্যমে৷ তবে ঠিক এই মুহুর্তে জার্মানিতে এটি দেখা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা ডিপিএ৷

Deutschland Kabinett Ilse Aigner CSU Landwirtschaftsministerin

ভোক্তা সংরক্ষণ মন্ত্রী ইলজে আইগনের

গুগলের সঙ্গে জার্মান সরকারের বিরোধ

আগেই বলেছি, গুগল স্ট্রিটের মাধ্যমে মনে হবে যেন রাস্তায় দাঁড়িয়েই আশেপাশের বাড়িঘরের অবস্থান দেখা যাচ্ছে৷ বিরোধটাও বেধেছে সেখানেই৷ এতদিন পর্যন্ত নিয়ম ছিল যে কোন ব্যক্তি যদি মনে করেন তাঁর বাড়ির অবস্থানটি তিনি দেখাতে চান না, তাহলে তাঁকে গুগল কর্তৃপক্ষকে সেটি জানাতে হতো৷ কিন্তু শনিবার জার্মানির ভোক্তা সংরক্ষণ মন্ত্রী ইলজে আইগনের বলেছেন, এই দায়িত্বটি এখন পালন করতে হবে গুগলকেই৷ অর্থাৎ কারো বাড়ির অবস্থানচিত্র তুলে ধরতে হলে গুগলকেই আগে অনুমতি নিতে হবে৷ কারো মতামতের তোয়াক্কা না করেই এভাবে ইন্টারনেটে সব বাড়ি ঘরের ছবি প্রকাশ করাকে ব্যক্তিগত গোপনীয়তার লংঘন বলে মনে করছেন জার্মান মন্ত্রী৷ তিনি গুগলের এই আচরণকে ‘উদ্ধত' বলে সমালোচনা করে বলেছেন, বিশ্বের কোন গোয়েন্দা সংস্থাও এমনটি করতে পারবে না৷ ইলজে আইগনের জানিয়েছেন তাঁরা এই সংক্রান্ত আইনটি পরিবর্তন করতে যাচ্ছেন৷

গুগলের বক্তব্য

জার্মান সরকারের অভিযোগ স্বাভাবিকভাবেই অস্বীকার করেছে গুগল কর্তৃপক্ষ৷ তারা জানিয়েছে যে গত এক বছরেরও বেশি সময় ধরে জার্মানির রাস্তাঘাটের যে ছবি তারা ইন্টারনেটে গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের মাধ্যমে দেখিয়েছে তা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে করা চুক্তির অধীনেই হয়েছে৷ শনিবার সংস্থাটির মুখপাত্রী লেনা ওয়াগনার বলেছেন, কেবল ছোট কয়েকটি অঞ্চল এখনও বাদ রয়ে গেছে৷ তবে তিনি স্বীকার করেছেন যে এখন পর্যন্ত কয়েকশ লোক তাদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লংঘনের অভিযোগ করেছে গুগলের কাছে৷ এজন্য রাস্তা ও বাড়িঘরের ছবি প্রকাশ করা হলেও কোন মানুষ কিংবা যানবাহনের ছবি স্পষ্ট করে দেখানো হয় না বলে জানিয়েছেন গুগলের মুখপাত্রী লেনা ওয়াগনার৷

প্রতিবেদক: রিয়াজুল ইসলাম, সম্পাদনা: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সংশ্লিষ্ট বিষয়