1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

গাড়ির শব্দ কমাতে ফর্মুলা ওয়ানের নতুন নিয়ম

ফর্মুলা ওয়ানের নতুন নীতির কারণে গাড়ির ‘সেক্সি’ গড়গড়ে আওয়াজ কিংবা ভয়ঙ্কর শব্দ কোনোটাই আগের মতো থাকছে না৷ চালকরা নতুন নীতি নিয়ে খানিকটা দ্বিধান্বিত৷ তবে দিনের শেষে সবাই নতুন নিয়মে খাপ খাইয়ে নেবে বলেই আশা হ্যামিল্টনের৷

ফর্মুলা ওয়ানের গাড়িগুলোর তর্জন-গর্জন অনেকেই এতকাল উপভোগ করেছেন৷ এমনকি মার্সিডিজের চালক লুইস হ্যামিল্টনও আছেন সেই তালিকায়৷ গাড়ির পুরাতন শব্দ এবং চালুর সময়কার গর্জন তাঁরও বিশেষ পছন্দ৷ কিন্তু ফর্মুলা ওয়ানের নতুন নিয়মে গাড়ির শব্দ যাচ্ছে কমে, কমছে গতিও৷

হ্যামিল্টন মনে করেন, ফর্মুলা ওয়ান এগিয়ে যাচ্ছে৷ আসলেও হচ্ছে তাই৷ রেসিং ট্র্যাকে এখন যুক্ত হচ্ছে ‘১.৬ লিটার ভি৬ টার্বোইঞ্জিন'৷ এই ইঞ্জিনের হর্সপাওয়ার আগের মডেলের চেয়ে কম৷ তবে গাড়িতে বাড়তি শক্তি যোগাতে একটি নতুন পদ্ধতি রয়েছে৷ মূলত ইঞ্জিনে উৎপন্ন উত্তাপ বিশেষ পন্থায় কাজে লাগিয়ে শক্তির বাড়তি উৎস তৈরি করা হয়েছে৷

টানা চারবার ফর্মুলা ওয়ান শিরোপা জয়ী সেবাস্টিয়ান ফেটেল অবশ্য মনে করেন, ফর্মুলা ওয়ান পেছনের দিকে যাচ্ছে – আগের বছরের তুলনায় এবার গাড়ির গতি কম হবে৷ তবে ঠিক কতটা গতি কমবে তা বোঝা যাবে প্রতিযোগিতা শুরুর পর৷

মার্চের ১৬ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া গ্রঁ প্রি৷ ফেরারি ড্রাইভার ফার্নান্ডো আলোনসো নতুন গাড়ি নিয়ে আশাবাদী৷ তিনি বলেন, ‘‘নতুন গাড়ি চালানো সহজ হবে৷ শক্তি বা গতি কম হলেও এটি নিয়ন্ত্রণে বাড়তি কিছু উপায় রয়েছে৷ বিশেষ করে স্টিয়ারিং হুইলে আরো নতুন বোতাম যোগ হয়েছে৷''

ফর্মুলা ওয়ানের নতুন নীতির ব্যাপারে ইতিবাচক হ্যামিল্টন৷ ধারণা করা হচ্ছে, আসন্ন রেসে ফেটেলের বিজয় রথ থামাতে সক্ষম হবেন তিনি৷ হ্যামিল্টন বলেন, ‘‘আমার মনে হয়, সবাই সম্ভবত শীঘ্রই কম শব্দের গাড়ির প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠবেন৷ সবচেয়ে বড় কথা, নতুন গাড়ি রেস চলাকালে চালক এবং রেস নিয়ন্ত্রকদের মধ্যকার যোগাযোগ সহজ করবে৷''

এআই/এসবি (এপি, এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন