1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গাধা রপ্তানি নিষিদ্ধ, তবু ব্যবসা ছয়লাপ

পশ্চিম আফ্রিকার রাষ্ট্র নাইজার৷ গাধা রপ্তানিতে এতদিন দেশটার বেশ ভালোই নাম-ডাক ছিল৷ গাধার চামড়া থেকে আঠা, যৌনশক্তি বর্ধক ওষুধ, বয়স কমিয়ে দেয়ার ক্রিম – এ সব চীনসহ মূলত এশিয়ার দেশগুলোতে রপ্তানি করতো নাইজার৷ কিন্তু...

বেশ কয়েক বছর ধরে দেশটিতে গাধার সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে কমতে শুরু করে৷ আর এখন তো এমনই হাল হয়েছে যে, রপ্তানি অব্যাহত থাকলে প্রাণীটি হয়ত নাইজার থেকে একেবারে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে৷ তাই এবার বাধ্য হয়েই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গাধা রপ্তানি বন্ধ করেছে দেশটি৷ শুধু তাই নয়, দেশের মধ্যে গাধা জবাইও নিষিদ্ধ করেছে নাইজার৷

তবে নাইজারই প্রথম নয়, গত আগস্ট মাসে প্রতিবেশী রাষ্ট্র বুর্কিনা ফাসো-ও গাধার চামড়া রপ্তানি নিষিদ্ধ করে৷ সেখানেও প্রাণীটির অস্তিত্ব ঝুঁকির মধ্যে পড়ায় এই সিদ্ধান্ত নেয় বুর্কিনা ফাসোর সরকার৷

কিন্তু গাধার চামড়ার চাহিদা হ্রাস পায়নি৷ আর কমবেই বা কী করে? আঠা, যৌনইচ্ছা ও যৌনশক্তি বর্ধক ওষুধ, বয়স কমিয়ে দিতে পারে এমন ক্রিম – এগুলোর চাহিদাও যে বেড়েছে বৈ কমেনি৷ তাই সরকারের শত বাধা সত্ত্বেও, প্রাণী পালনকারীরা বেছে নিচ্ছেন বেআইনি পথ৷ অত্যন্ত লাভজনক গাধা-ব্যবসায় ঝুঁকছেন তাঁরা৷

ডিজি/এসিবি

বন্ধুরা, কেমন লাগলো ভিডিওটি? জানান আমাদের, লিখুন নীচের ঘরে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন