1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গাজীপুরে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে শিল্প কারখানা

গাজীপুরে প্রায় ১০,০০০ একর বনভূমি দখল হয়ে গেছে৷ আর এই বন দখল করে সেখানে গড়ে তোলা হয়েছে ২১০টি শিল্প প্রতিষ্ঠান৷ তাদের দূষিত বর্জ্যে আরো বনভূমি উজার হওয়ার পথে৷ বন বিভাগ দখলদারদের বিরুদ্ধে মামলা করলেও পারছে না৷

বন বিভগের দাবি, দেশের বৃহত্‍ শিল্প গ্রুপ পারটেক্স-এর পারটেক্স ডেনিম কারখানার পুরোটাই গড়ে ওঠেছে সরকারি বনভূমি দখল করে৷ তারা গাজীপুরে মোট ৩৮ একর সরকারি বন দখল করে এই কারাখানা গড়ে তুলেছে৷ তাদের বিরুদ্ধে বন বিভাগ ২০০৫ সাল থেকে আইনি লড়াই চালাচ্ছে৷ গাজীপুর বন বিভাগের কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোহসিন ডয়চে ভেলেকে জানান, তারা মোট ২১০টি শিল্প প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা চালিয়ে যাচ্ছেন৷ তবে ছোট-বড়সহ নানা ধরণের দখলদারের সংখ্যা ১৩,০০০ বলে তাদের এক জরিপে তথ্য পাওয়া গেছে৷

এদিকে, এই বন দখলের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষ এবং বন থেকে উপকারভোগীরা বার বার প্রতিবাদ করেছেন৷

কিন্তু প্রতিবাদ করায় তাদের বিরুদ্ধে নানা ধরণের অসত্য মামলা করে হয়রানি করা হয়৷ গাজীপুরের বেস্টওয়ে গ্রুপের বন দখলের প্রতিবাদ করতে গিয়ে কয়েকশ নিরীহ মানুষ মামলার শিকার হয়েছেন৷ মিথ্যা মামলায় তাদের হাজতবাস করতে হয়েছে৷ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান মেয়র এম এ মান্নান ডয়চে ভেলেকে জানান, বন দখলের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে সংঘঠিত করায় বেস্টওয়ে গ্রুপ দু'বছর আগে তাঁর বিরুদ্ধেও মামলা দেয়৷

সাধারণ মানুষের অভিযোগ, পুলিশ এবং বন বিভাগের এক শ্রেণির অসত্‍ কর্মকর্তা এই দখলকারীদের সহায়তা করছে৷ তাই সাধারণ মানুষ তাদের সঙ্গে পেরে উঠছে না৷ সরকারি বন দখল করে গড়ে ওঠা হানিফ স্পিনিং মিলের প্রকৌশলী শাহ আলম ডয়চে ভেলের কাছে স্বীকার করেন যে, ১৯৯২ সালে তখনকার বন কর্মকর্তা জালাল আহমেদের সঙ্গে সমঝোতা করেই তারা সাড়ে পাঁচ একর এলাকা জুড়ে কারাখানার কাজ শুরু করেন৷ তিনি এখন অবশ্য তাদের বিরুদ্ধে বন বিভাগের মামলার কথা স্বীকার করেন৷ বন বিভাগের বর্তমান কর্মকর্তা মো. মোহসিন জানান, কিছু অসাধু কর্মকর্তা যে নেই তা নয়৷ তবে এখন তারা দখল হয়ে যাওয়া বনভূমি পুনরুদ্ধারে সর্বাত্মক চেষ্টা করছেন৷

ওদিকে, গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সঞ্জীব কুমার ডয়চে ভেলেকে জানান, সাধারণ মানুষের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক কিছু মামলা হয়েছে সত্য৷ তবে তারা তা প্রত্যাহারেরও উদ্যোগ নিয়েছেন৷ তিনি বলেন, দখল হয়ে যাওয়া বনভূমি উদ্ধারে শুধু বন বিভাগ একা নয়, পুরো জেলা প্রশাসন কাজ করছে৷

হিসাব অনুযায়ী, ঢাকা বন বিভাগে গাজীপুর জেলায় মোট সরকারি বনভূমির পরিমাণ ৬৪,৭৫০ একর৷ কিন্তু বাস্তবে এর প্রায় এক তৃতীয়াংশ বন আর নেই৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন