1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গাজায় অবরোধ তুলে নেওয়ার দাবি

গাজার উপর থেকে ইসরায়েলি অবরোধ তুলে নেওয়ার দাবি জানালেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন৷ সোমবারের ঘটনার তদন্তে স্বাধীন মিশন পাঠানোর প্রস্তাব পাস হলো জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদে৷ ইসরায়েলি হামলার নিন্দা জানালেন জিমি কার্টার৷

default

ইসরায়েল থেকে ফিরে দুই সন্তানকে জড়িয়ে ধরলেন এক জর্ডানীয় নাগরিক

বান কি-মুন বলেন, ইসরায়েল এই অবরোধের মাধ্যমে মোটেই আশানুরূপ ফল পাচ্ছে না৷ এমন অবরোধ বেশিদিন চালু রাখাও সম্ভব নয়৷ তাছাড়া এটা সম্পূর্ণ ভুল পদক্ষেপ৷ এদিকে, ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসও বুধবার মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন বিশেষ দূত জর্জ মিচেলের সাথে আলোচনায় গাজায় ইসরায়েলি অবরোধ তুলে নেওয়ার আহ্বান জানান৷

জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদ গাজা অভিমুখী ত্রাণবাহী নৌবহরে ইসরায়েলের হামলাকে আন্তর্জাতিক বিধি লঙ্ঘন বলে অভিহিত করেছে৷ ঐ হামলার তদন্তে স্বাধীন মিশন গঠনের ব্যাপারেও ঐকমত্য হয় পরিষদের বুধবারের সভায়৷ ইসলামি সম্মেলন সংস্থার পক্ষে পাকিস্তান এবং আরব গোষ্ঠীর পক্ষে সুদান নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করে৷ ৪৭ সদস্যের পরিষদে ৩২ ভোটে অনুমোদিত হয় ইসরায়েলের ঐ হামলা বিরোধী নিন্দা প্রস্তাব৷

NO FLASH Israel Palästina Palästinenser Aktivisten Gaza Bus Gefängnis

তেলআভিভের কাছে বিমান বন্দরে পৌছলে বিজয় চিহ্ন দেখান ফিলিস্তিনপন্থী বিদেশি কর্মীরা

সোমবারের ইসরায়েলি হামলার নিন্দা জানিয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার৷ বুধবার এক বিবৃতিতে তিনি আমেরিকার নেতৃত্বে আন্তর্জাতিক গোষ্ঠীকে গাজায় অবরোধের অবসান এবং ফিলিস্তিনিদের পুনরেকত্রীকরণে সহায়তা করার আহ্বান জানান৷ কার্টার বলেন, ‘‘গাজার উপর অবরোধ আরোপ যে অসামরিক মানুষদের প্রতিই আঘাত, ইসরায়েলের এই হামলা সে কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়৷'' বিবৃতিতে বলা হয় যে, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ সোমবারের ঐ হামলার দ্রুত ও স্বাধীন তদন্তের যে ডাক দিয়েছে তা সমর্থন করে কার্টার সেন্টার৷ উল্লেখ্য, আমেরিকার রাষ্ট্রপ্রধান থাকাকালে ১৯৭৯ সালে তাঁরই মধ্যস্থতায় ইসরায়েল এবং মিশরের মধ্যে স্বাক্ষরিত হয়েছিল ঐতিহাসিক শান্তি চুক্তি৷

Israel Palästina Palästinenser Aktivisten Linke Deutschland Flash-Galerie

প্রেস ব্রিফিংয়ে ত্রাণবাহী নৌবহরে ইসরায়েলি হামলার সম্পর্কে বলছেন জার্মান সাংসদ আনেটে গ্রোথ

এদিকে, ত্রাণবাহী নৌবহর থেকে আটককৃত ৬৩২ জন বিদেশি নাগরিককে মুক্তি দিলেও চার আরব-ইসরায়েল নেতাকে এখনও বন্দি করে রেখেছে ইসরায়েল৷ নৌবহরের অন্যতম আয়োজক ‘স্বাধীন গাজা আন্দোলন' এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, ইসরায়েলের দক্ষিণ উপকূলবর্তী শহর আশকেলনের একটি আদালত চার আরব-ইসরায়েলি নেতার আটকাদেশ আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে৷ ঐ চার নেতা তুরস্কের জাহাজ ‘মাভি মারমারা'তে ছিলেন৷ বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়েছে যে, ‘‘ঐ নৌবহরে অংশগ্রহণকারী চার নেতার প্রতি বৈষম্য করা হচ্ছে৷ ইসরায়েলি নাগরিক হিসেবে নয় – বরং ইসরায়েলের ফিলিস্তিনি আরব-নাগরিক হিসেবেই তাঁদেরকে এখনও আটক রাখা হয়েছে৷''

অন্যদিকে, ইসরায়েলি সংসদে বুধবার আরব-ইসরায়েলি সাংসদ হানিন জোয়াবি ত্রাণবাহী নৌবহরে ইসরায়েলের হামলাকে ‘দস্যুতার মতো অপরাধমূলক কাজ' বলে মন্তব্য করেন৷ ১২০ সদস্যের সংসদে যে ডজন খানেক আরব সাংসদ রয়েছেন, ৪১ বছর বয়সি জোয়াবি তাঁদের একজন৷ ত্রাণবাহী নৌবহরেও অংশ নিয়েছিলেন জোয়াবি৷ তবে সংসদে তাঁর এমন মন্তব্যের পর কট্টর বামপন্থী সাংসদদের তোপের মুখে পড়েন তিনি৷ তাঁর দিকে ছুটে যান ইসরায়েল বেইতেনু পার্টির সাংসদ আনাস্তাসিয়া মিশায়েলি৷ এসময় নিরাপত্তা রক্ষীরা তাঁকে নিবৃত্ত করেন৷ এছাড়া বুধবার আবারও নিজেদের হামলার পক্ষে অবস্থান ব্যাখ্যা করলেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু৷

প্রতিবেদন: হোসাইন আব্দুল হাই

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়