1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

গরিব দেশ থেকে

আজ বিজ্ঞান প্রযুক্তি আর সমাজ জীবন পাতায় চারটি প্রতিবেদন খুব ভালো লেগেছে৷ যেমন বিজ্ঞানের নতুন বিস্ময় করো ভাষা, ভাইরাস, বিদেশ থেকে দত্তক নিতে আগ্রহী জার্মানরা ও অসম ...

default

আজ বিজ্ঞান প্রযুক্তি আর সমাজ জীবন পাতায় চারটি প্রতিবেদন খুব ভালো লেগেছে৷ যেমন বিজ্ঞানের নতুন বিস্ময় করো ভাষা, ভাইরাস, বিদেশ থেকে দত্তক নিতে আগ্রহী জার্মানরা ও অসম অধিকারের জন্য লড়ছে সৌদি আরবের নারীরা৷ জার্মানরা গরিব দেশ থেকে দত্তক নিতে চায় জেনে খুব ভালো লাগলো৷ ডয়চে ভেলের ওয়েবসাইট একদিন না দেখলে মনে হয় কিছু একটা বাকী থেকে গেছে৷ ডয়চে ভেলের সকলকে এবং শ্রোতাবন্ধুদের আমার শুভ মহালয়ার শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা জানালাম৷ অমর নাথ দাস, গোপালনগর, বর্ধমান, ভারত৷

ডয়চে ভেলের বিশ্বসংবাদ বরাবরই ভাল লাগে৷ তবে গতকাল সবচেয়ে ভাল লাগলো এই প্রজন্ম অনুষ্ঠানটি৷ আলী মাহমেদ শুভকে ধন্যবাদ সামাজিক দায়বদ্ধতা হতে প্রাথমিক শিক্ষা নিয়ে কাজ করার জন্য৷ ডয়চে ভেলেকে ধন্যবাদ সুন্দর অনুষ্ঠানটির জন্য৷ আশাকরি আলী মাহমেদ শুভকে দেখে আরও অনেকে সামাজিক দায়বদ্ধতা হতে এই ধরনের কাজ করবে৷ আমাকে কি আলী মাহমেদ শুভর মেইল আইডিটি পাঠাবেন?

ভাইরাস নিয়ে হেল্থলাইন পরিবেশনাটি ভাল লেগেছে৷ আর ওয়েবসাইটে হেল্থলাইন নামে একটা মেনু চালু করলে ভালো হতো৷ যেখানে বিভিন্ন সংক্রামক ও ছোঁয়াচে রোগ সম্পর্কে তথ্য থাকবে, যেমন রোগের কারণ, লক্ষণ, প্রতিকার, প্রতিরোধ, চিকিৎসা৷ এছাড়াও এফএমএ বিভিন্ন সংক্রামক ও ছোঁয়াচে রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত অনুষ্ঠানে প্রচার করলে অনেক শ্রোতাবন্ধু উপকৃত হতো৷ আশাকরি প্রস্তাবটি ভেবে দেখবেন৷ আশাকরি জবাব পাব, এই প্রত্যাশায় সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিদায়৷ মাহফুজুর রহমান, ঝাকুনীপাড়া, কুমিল্লা, বাংলাদেশ৷

পড়াশোনা বিষয়ক ক্যাম্পাস ফিচারের মত চাকুরি বিষয়ক একটি ফিচার করুন৷ রাজীব কুমার, নাটোর, বাংলাদেশ৷

ডয়চে ভেলের বাংলা অনুষ্ঠানের এফএম সম্প্রচার আনুষ্ঠানিকভাবে গতকাল উদ্বোধন হলো৷ এফএম অনুষ্ঠানকে আরো শ্রোতার কাছে পৌঁছানোর জন্য দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে বেশি করে প্রচার প্রয়োজন৷ স্টিকার তৈরি করে শ্রোতাদের হাতে তুলে দেওয়া উচিত৷ বিধান চন্দ্র টিকাদার, ভয়েস অফ জার্মানি লিসনার্স ক্লাব, জলিরপাড়, গোপালগঞ্জ, বাংলাদেশ৷

ডয়চে ভেলের অনুষ্ঠান আমার নিত্যদিনের সঙ্গী৷ খেলার খবর আমি দারুণভাবে উপভোগ করি৷ এমএইচ রনি, শম্ভুপুর, ভোলা, বাংলাদেশ৷