1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

গণ জাগরণমঞ্চের যশোর অভিমুখে রোডমার্চ

বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস, সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ এবং এর সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি সহ অন্যান্য দাবিতে গণ জাগরণমঞ্চের যশোর অভিমুখে রোডমার্চ – এমন সব বিষয় নিয়ে লিখছেন ব্লগার আর ফেসবুক ব্যবহারকারীরা৷

১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের বন্দিদশা থেকে মুক্তি পেয়ে স্বাধীন, সার্বভৌম বাংলাদেশে ফিরেছিলেন৷

দিনটিকে স্মরণ করে অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী তাদের কাভার ফটো হিসেবে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ছবি ব্যবহার করেছেন৷

সামহয়্যার ইন ব্লগে মোরতাজা দিবসটি স্মরণ করে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের একটি অংশ তুলে দিয়েছেন৷ সেই অংশটিতে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, ‘‘...বাংলার মানুষ প্রতিবাদ মুখর হয়ে উঠলো৷ আমি শান্তিপূর্ণ সংগ্রাম চালিয়ে যাবার জন্য হরতাল ডাকলাম৷ জনগণ আপন ইচ্ছায় পথে নেমে এলো৷ কিন্তু কি পেলাম আমরা? বাংলার নিরস্ত্র জনগণের উপর অস্ত্র ব্যবহার করা হলো৷ আমাদের হাতে অস্ত্র নেই৷ কিন্তু আমরা পয়সা দিয়ে যে অস্ত্র কিনে দিয়েছি বহিঃশত্রুর হাত থেকে দেশকে রক্ষা করার জন্যে, আজ সে অস্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে আমার নিরীহ মানুষদের হত্যা করার জন্য৷ আমার দুঃখী জনতার উপর চলছে গুলি৷''

মোরতাজা লিখেছেন, ‘‘এমন মুক্তির বাণী যাঁর কণ্ঠে, সেই জনতার মুক্তির জন্য লড়াকু মানুষটির স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ৷ শ্রদ্ধা, ভালোবাসা তাঁর জন্য৷ আজকের মৃত্যু, খুন, লুট এবং নিরাপত্তাহীন জীবনে এ ভাষণের গুরুত্ব উপলব্ধি করলে আমরা উপকৃত হবো৷ দাসত্বের শৃঙ্খলে আবদ্ধ হবে না বাংলাদেশের স্বাধীনচেতা মানুষ৷ জয় হোক মানুষের, সব শঙ্কার অবসান হোক৷''

এদিকে, সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রোধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিত করে আলাদা আইন প্রণয়ন সহ তিনটি দাবিতে যশোর অভিমুখে রোড মার্চ শুরু করেছে গণ জাগরণমঞ্চ৷ ‘ব্লগার অ্যান্ড অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট নেটওয়ার্ক বিওএএন'-এর ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত তথ্য ও ছবি নিয়মিত আপডেট করা হচ্ছে৷

গণজাগরণ মঞ্চের ফেসবুক পেজে তাঁদের অন্য যে দুটে দাবির কথা বলা হয়েছে সেগুলো হলো, সাম্প্রতিক প্রতিটি নির্যাতনের ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ও গোষ্ঠিকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে এবং সারা দেশে আক্রান্ত পরিবারগুলোর ক্ষতি নিরূপণ করে তাঁদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করতে হবে৷ এই দাবিগুলো পূরণে সরকারকে আগামী এক মাসের মধ্যে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানিয়েছে গণ জাগরণমঞ্চ৷

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন