1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

গণতন্ত্রে গণভোট কতটা কার্যকর হতে পারে?

জার্মানির একটি রাজ্যে শীঘ্রই এক গণভোট অনুষ্ঠিত হতে চলেছে৷ সেইসঙ্গে গণভোটের সুফল ও কুফল নিয়ে চলছে বিতর্ক৷ জার্মানিতে গণভোট আয়োজনের সুযোগ থাকলেও এই রীতি ব্যতিক্রম থেকে গেছে৷

default

জার্মানির বাডেন ভ্যুর্টেমব্যার্গ রাজ্যের সাম্প্রতিক বিধানসভা নির্বাচনে রাজধানী স্টুটগার্টের প্রধান স্টেশনের বিতর্কিত সংস্কার প্রকল্প অন্যতম প্রধান বিষয় হয়ে উঠেছিল৷ সবুজ দল প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, ক্ষমতায় এলে এই প্রশ্নে তারা গণভোটের আয়োজন করবে৷ ঐতিহাসিক এই নির্বাচনে জিতে প্রথম বারের মতো একটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হতে চলেছেন সবুজ দলের কোনো নেতা৷ এবার তাঁর প্রতিশ্রুতি পালনের পালা৷

এমন এক ঘটনার জের ধরে গোটা জার্মানিতেই গণভোটের পক্ষে-বিপক্ষে নানা মত শোনা যাচ্ছে৷ নির্দিষ্ট কয়েক বছরের ব্যবধানে আয়োজিত নির্বাচনে জার্মানির ভোটাররা ফেডারেল, রাজ্য ও পৌর স্তরে জনপ্রতিনিধিদের বেছে নেন৷ সংসদ, বিধানসভা বা পুরসভায় গিয়ে তাঁরাই সব প্রশ্নে সিদ্ধান্ত নেন৷ ভালো কাজ করলে তাঁরা পুনর্নির্বাচিত হন, না করলে বিদায় নিতে হয়৷ কিন্তু বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নে আলাদা করে জনগণের রায় নেওয়া উচিত কি না, তা নিয়ে জার্মানিতে বিতর্ক রয়েছে৷ প্রতিবেশী দেশ সুইজারল্যান্ডে অত্যন্ত ঘনঘন গণভোটের রীতি রয়েছে৷ জার্মানির সংবিধানে একমাত্র কোনো রাজ্যের সীমানায় পরিবর্তন ঘটানোর উদ্যোগের ক্ষেত্রে গণভোটের বিধান রয়েছে৷ ১৯৯৬ সালে বার্লিন ও সংলগ্ন রাজ্য ব্রান্ডেনবুর্গ জুড়ে একটি রাজ্য গঠনের প্রশ্নে এই দুই শহর ও রাজ্যে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷ বার্লিনের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ এই প্রস্তাবের পক্ষে রায় দিলেও ব্রান্ডেনবুর্গের মানুষ এর বিরোধিতা করে৷ ফলে প্রস্তাব নাকচ হয়ে যায়৷

তবে রাজ্য ও পৌর স্তরে গণভোট আয়োজন করার সুযোগ রয়েছে৷ সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট সংখ্যক ভোটারের স্বাক্ষরের প্রয়োজন পড়ে৷ তারা প্রথমে গণভোটের প্রয়োজনীয়তার দাবি জানালে তবেই গণভোট আয়োজন করা যেতে পারে৷ ২০০৮ সালে বার্লিনের একটি বিমানবন্দর বন্ধ করার প্রশ্নে গণভোট অনুষ্ঠিত হয়েছিল৷ তবে কমপক্ষে ২৫ শতাংশ ভোটার তাতে অংশ না নেওয়ায় তার ফলাফল বাতিল হয়ে যায়৷ এমন ঘটনা অন্য রাজ্যেও ঘটেছে৷ সংবিধান অনুযায়ী শুধু ২৫ শতাংশ ভোটার গণভোটে অংশ নিলেই চলবে না, মোট ভোটের কমপক্ষে ২৫ শতাংশ প্রস্তাবের পক্ষে পড়তে হবে৷ তবেই সেই গণভোটের সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে৷ ২০১০ সালে বাভেরিয়ায় এক গণভোটে প্রকাশ্যে ধূমপানের বিরুদ্ধে প্রায় ৬১ শতাংশ ভোট পড়েছিল৷ সেই গণভোটকে অত্যন্ত সফল হিসেবে বিবেচনা করা হয়৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়